ভিতরে

জয়পুরহাটে জেলা আধুনিক হাসপাতাল ২৫০ বেডে উন্নীতকরণ কাজ এগিয়ে চলছে

জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালকে ১০০ বেড থেকে ২৫০ বেডে উন্নীতকরণ  কাজ এগিয়ে চলছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৬ কোটি ৩৩ লাখ ৪৪ হাজার ৬২৩ টাকা ।  
হাসপাতাল সূত্র বাসস’কে জানায়, ৫০ শয্যা থেকে  ১৯৯৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি ১শ শয্যার হাসপাতাল হিসেবে এর কার্যক্রম শুরু করা হয়। অবকাঠামোগত সুবিধা থাকায় একই জনবল দিয়ে ২০০৬ সালের ১৬ জুলাই ১শ ৫০ শয্যার হাসপাতাল চালুর উদ্বোধন করা হয়। জেলার ১২ লক্ষাধিক লোকের জন্য জেলা আধুনিক হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হলেও আধুনিক সুযোগ সুবিধা ও স্বাস্থ্য সেবার মান ভালো হওয়ায় পার্শবর্তী নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট, বদলগাছী উপজেলা, দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট উপজেলা, গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা ও বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার অধিকাংশ রোগী আসে জয়পুরহাট জেলা হাসপাতালে। ফলে ১০০ বেডের হাসপাতাল হলেও সব সময় আড়াইশ থেকে তিনশ রোগী ভর্তি থাকেন। সে কারণে ১০০ বেডের  জায়গায়  দাবি ছিল ২৫০ শয্যায় উন্নীত করার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামীলীগ সরকারের অঙ্গীকার অনুযায়ী জয়পুরহাট জেলা হাসপাতালকে ১০০ থেকে ২৫০ বেডে উন্নীত করার সিদ্ধান গ্রহণ কর হয়।  অনুমোদিত প্রাক্কলন মূল্য হচ্ছে ৩৬ কোটি ৩৩ লাখ ৪৪ হাজার ৬২৩টাকা। এখানে ১২ তলা ফাউন্ডেশনে ৭তলা পর্যন্ত অবকাঠামো নির্মাণ সম্পন্ন করা হয়েছে। ৪০ টি গাড়ি রাখার পাকিং বেজমেন্ট সহ, ৪টি লিফ্ট, অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন জরুরী বিভাগ, অপারেশন থিয়েটার, প্যাথলজি, রেডিওলজি বিভাগ, এ্যানেসথেসিয়া, ইমেজিং বিভাগ, মেল-ফিমেল সার্জারী বিভাগ, গাইনীসহ ক্যান্টিন ও মেডিক্যাল ষ্টোর থাকবে। জেলা গণপূর্ত বিভাগের তত্বাবধানে জয়েন্ট ভেন্সার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বিবিএল-কেটি নির্মাণ কাজ করছেন। ইতোমধ্যে  অবকাঠামো  নির্মাণ কাজ ও   যন্ত্রপাতিও বসানোর কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলে জানান, জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: মিজানুর রহমান। জেলা আধুনিক হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য বিশিষ্ট সমাজসেবক রাজা চৌধুরী বলেন, জেলাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ করতে সরকার ২৫০ শয্যার জেলা হাসপাতাল নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। এতে জেলার সাধারণ মানুষ উন্নত মানের চিকিৎসা সেবা পাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।  ২৫০ শয্যার এ জেলা হাসপাতালের ৯০ ভাগ কাজ সমাপ্ত হয়েছে এটি চালুর জন্য প্রয়োজনীয় লোকবল পদায়নের কাজ চলছে বলে জানান, জেলা আধুনিক হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: সরদার রাশেদ মোবারক।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

কুমিল্লায় বঙ্গবন্ধু পল্লী আশ্রয়ণ প্রকল্পটি মডেল হিসেবে গড়ে তোলার কাজ চলছে

চট্রগ্রামে কোরবানির পশু জবাইয়ে চসিকের ৩০৪ স্থান নির্ধারণ