ভিতরে

ফেনীতে মুহুরী বাঁধ ভাঙ্গনে লোকালয় প্লাবিত

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে জেলার ফুলগাজীতে মুহুরী বাঁধের দুই স্থানে ভেঙে লোকালয় প্লাবিত হয়েছে। এর আগে চলতি বছর ৬ জুন সদর ইউনিয়নের ঘনিয়ামোড়াতে বাঁধ ভেঙে ফসলি জমি প্লাবিত হয়।
ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ ও পানি উন্নয়ন বোর্ড ফেনীর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. আখতার হোসাইন জানান, ফুলগাজী বাজারের পাশে উত্তর দৌলতপুরে বাঁধ ভাঙনে চারটি গ্রাম ও ফুলগাজী বাজার প্লাবিত হয়েছে। এছাড়া একই উপজেলার জয়পুরে বাঁধ ভেঙে আরও তিনটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। আখতার হোসাইন জানান, অতিবর্ষণে মুহুরী নদীতে পানি বিপদসীমার ১১০ সেমি উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
উল্লেখ্য, বাঁধ ভেঙে প্লাবনে তলিয়ে যায় ফুলগাজী বাজার, ফেনী-পরশুরাম আঞ্চলিক মহাসড়ক, গ্রামীণ রাস্তাঘাট, মৎস্য ঘের, ফসলের বীজতলা।
এদিকে ভাঙ্গনস্থল পরিদর্শন করেন ফেনী জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মো. মাহামুদ উল-হাসান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- পানি উন্নয়ন বোর্ড ফেনীর নির্বাহী প্রকৌশলী জহির উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আজগর আলী, ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল আলিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ফেরদৌসি বেগম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুলতানা নাসরিন কান্তা পানি, পানি উন্নয়ন বোর্ড ফেনীর উপ প্রকৌশলী মো. আখতার হোসাইন, ফুলগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএনএম নুরুজ্জামান প্রমুখ।
জেলা প্রশাসক বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রস্তুত করে সার্বিক ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।
মুহুরী বাঁধ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ৭৩২ কোটি টাকার একটি প্রকল্প যাচাই বাছাই চলছে। এর বাস্তবায়ন হলে স্থানীয় মানুষ সুফল ভোগ করবেন।
ফুলগাজী  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফেরদৌসি বেগম জানান, প্রশাসনের পক্ষ হতে জরুরিভিত্তিতে ৫শ’ জনকে শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

চট্টগ্রামে লকডাউনের প্রথমদিনে রাস্তাঘাট প্রায় ফাঁকা

চট্টগ্রামে করোনায় সর্বোচ্চ ৫৫২ আক্রান্ত