ভিতরে

২০০৬ বিশ্বকাপ দুর্নীতির জন্য বাওয়ারের বিরুদ্ধে মামলা নয় : ফিফা

ফ্রেঞ্জ বেকেনবাওয়ার ও জার্মান ফুটবলের অন্য কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ২০০৬ বিশ্বকাপ ফুটবলের ভোট ক্রয় কেলেঙ্কারির জন্য মামলা করা যাবে না। কারণ এর মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার ফিফার নৈতিকতা বিষয়ক কমিটি একথা জানিয়েছে।
এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,‘স্বাধীন ভাবে পরিচালিত নৈতিক কমিটির বিচারিক চেম্বারের দেয়া রুলিং অনুযায়ী ২০০৬ সালের ফিফা বিশ^কাপ দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়ে ফ্রেঞ্জ বেকেনবাওয়ার, থিও জওয়ানজিগার ও হোর্স্ট আর স্মিদ এর বিরুদ্ধে মামলা করা যাবে না। কারণ তাদের বিরুদ্ধে মামলার জন্য আবেদনের সময় সীমা পার হয়ে গেছে।’
ফিফার অভ্যন্তরীন বিচার বিভাগ বলেছে, বাওয়ারের জন্য ২০১২ সাল এবং জওয়ানজিগার ও স্মিদের বিপক্ষে মামলার মেয়াদ ২০১৫ সাল পর্যন্ত নির্ধারিত ছিল।
২০১৬ সালে বাওয়ার ও ২০০৬ সালের ভেন্যু চুড়ান্তকরণ কেলেঙ্কারিতে জড়িত আরো ৫ ব্যক্তির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু করে ফিফার নৈতিকতা কমিটি। তাদের বিরুদ্ধে ঘুষ লেনদেনেরও অভিযোগ উঠে। ওই অভিযোগে জার্মান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিএফবির সভাপতি থিও জওয়ানজিগার ও সাধারণ সম্পাদক হোর্স্ট আর স্মিদকেও জড়ানো হয়েছে। আয়োজক কমিটির প্রধান ছিলেন সাবেক খেলোয়াড় ও কোচ বেকেনবাওয়ার।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

‘পরিচয়’র মতো আদর্শ শিশু-কিশোর সংগঠন আরও প্রয়োজন : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

আইসিসিকে আহমেদাবাদের উইকেট খতিয়ে দেখতে বললেন রুট