ভিতরে

বিদেশী বাহিনীর দোভাষী হিসাবে কাজ করা আফগানদের প্রথম ফ্লাইট যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছেছে

মার্কিন সৈন্য এবং কূটনীতিকদের জন্য দোভাষী হিসাবে কাজ করা আফগানদের বহনকারী প্রথম ফ্লাইট আমেরিকায় পৌঁছেছে।
প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার বলেছেন, সম্ভাব্য তালেবান প্রতিশোধ থেকে হাজার হাজার আফগানকে সরিয়ে নিতে এই অভিযান শুরু হয়েছে।
৯/১১ হামলার ঘটনায় ২০০১ সালে আফগানিস্তানে মার্কিন অভিযানের পর থেকে প্রায় ২০ হাজারের বেশী আফগান যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে কাজ করেছেন। স্টেট ডিপার্টমেন্টের বিশেষ ভিসা প্রোগ্রামের অধীনে তাদের যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
প্রস্তাবিত অনুমিত হিসাবে সম্ভাব্য উদ্বাস্তুদের মোট সংখ্যা ১ লাখের মতো হতে পারে, “অপারেশন অ্যালাইজ রিফিউজি” নামে অভিহিত এই প্রোগামে দোভাষী ও সহায়তাকারীদের স্বজনদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
দোভাষী আফগানদের অনেকেই তালেবান প্রতিশোধের আশঙ্কা করছেন, আগস্টের শেষ নাগাদ সকল বিদেশী সৈন্য প্রত্যাহার সম্পন্নের লক্ষ্যে, ইতোমধ্যে মার্কিন সৈন্যদের প্রত্যাহার শুরুর পর তালেবানরা দেশটির বিশাল এলাকার নিয়ন্ত্রন নিয়েছে।
হোয়াইট হাউসের প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, “ আজ এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক, কারণ আমরা আমাদের প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে চলেছি। হাজার হাজার আফগান নাগরিক গত ২০ বছর মার্কিন সৈন্য ও কূটনীতিকদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করেছেন।”

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

লকডাউনে আটকেপড়া পোশাক শ্রমিকরা চাকরি হারাবেন না

বিধি-নিষেধ শিথিল করায় যুক্তরাজ্যে বেড়েছে করোনা সংক্রমণ