ভিতরে

মাগুরায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে হটলাইন টিম

জেলায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়িছে হটলাইন টিম’। খাবার বা অক্সিজেনের জন্য কেউ ফোন দিলেই তাদের বাড়িতে এসব সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে হটলাইন টিমের সদস্যরা। করোনা মোকাবেলায় সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে জেলার বিভিন্ন এলাকায় সচেতনামূলক প্রচারণাও চলাচ্ছেন তারা।   
হটলাইন টিমের সমন্বয়ক ও জেলা যুবলীগের আহবায়ক ফজলুর রহমান জানান, করোনা মহমারিতে মানুষের পাশে দাঁড়াতে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর মহামারির শুরুতেই ‘করোনা মহামারিতে সহায়তায় গঠিত’ হটলাইন টিম গঠন করেন। করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য স্বেচ্ছা শ্রমে দিন রাত কাজ করছেন টিমের অন্তত ৫০ জন সদস্য।
এ পর্যন্ত সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখরের নির্দেশে হটলাইন টিম সদস্যরা করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ফল, ওষুধ সরবরাহসহ তাদের সহমর্মি হয়েছেন। পাশাপাশি করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৪ হাজার অসচ্ছল দরিদ্র মানুষের বাড়িতে শিশু খাদ্যসহ খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়েছে। যে কেউ হটলাইনে ফোন দিলে রাতের আধারে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে টিমের সদস্যরা। এছাড়া অনেক মধ্যবিত্ত ও নি¤œ মধ্যবিত্ত পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ হটলাইনে ফোন দিলে তাদের পরিচয় গোপন রেখে খাদ্য সমাগ্রী পৌছে দেয়া হচ্ছে তাদের বাড়িতে।  সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এ খাবার পৌঁছানোর কাজ করছে তারা। এর পাশাপাশি  যখনই কোন করোনা আক্রান্ত রোগী অক্সিজেনের জন্য ফোন দিচ্ছে তখনই তাদের বাড়িতে গিয়ে টিমের সদস্যরা অক্সিজেন পৌছে দিচ্ছ।  এ কাজ করতে গিয়ে তাদের টিমের  কয়েকজন সদস্য ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তার পরও মানব সেবায় তাদের এ কাজ অব্যাহত আছে এবং থাকবে। 
জেলার মানুষকে করোনা সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলত অনুরোধ করা হচ্ছে। লকডাউনের এ সময়টাতে সকলকেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানাচ্ছি । এজন্য আমারা জেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। এর পাশাপাশি যাদের খাদ্য ও ওষুধ সংকট রয়েছে তাদের জন্য এসবের ব্যবস্থা করছি।
ফজলুর রহমান আরো জানান, গত ২ জুলাই মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর ও জেলা পরিষদের উদ্যোগে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে  ৪টি  হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা মেশিন হস্তান্তর করা হয়েছে। মাগুরা-১ আসনের এমপির পক্ষে হটলাইনের সমন্বায়ক হিসেবে আমি ও টিমের সদস্যরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে এ মেশিন পৌছে দিয়েছি। এছাড়া গত ৮ জুলাই মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে আরো ১৫টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়েছেন এমপি সাইফুজ্জামান শিখর । যা এমপির পক্ষে হাসপাতলের  আরএমও বিকাশ শিকদারের কাছে পৌছে দিয়েছে হটলাইন টিমের সদস্যরা। এতে করে করোনা আক্রান্ত ও শ্বাস কষ্টে নিয়ে হাসপাতালে আশা রোগীদের  নির্বিঘেœ আক্সিজেন সরবরাহ আরো সহজতর হবে।
জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম জানান, করোনা মহামারির সময়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের পাশাপাশি স্বেচ্ছা শ্রমের ভিত্তিতে জেলায় রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি, স্কাউট ও হটলাইন টিম কাজ করছে। বিশেষ করে  হটলাইন টিমের কাজ ইতি মধ্যে সকলের দৃষ্টি কেড়েছে। হটলাইন টিমের মত সকলেই করোনা মোকাবেলাই এগিয়ে আশা উচিত।
এ বিষয়ে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে মানুষকে সেবা দেয়ার জন্য হটলাইন টিম গঠন করা হয়েছে। করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত’দের খাদ্য, ওষুধ অক্সিজেনসহ সবধরণের সহযোগিতা করা হচ্ছে। করোনা কালে একটি মানুষও না খেয়ে থাকবে না। বর্তমান পরিস্থিতিতে  করোনা মোকাবিলায় সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি ব্যক্তি ও সমষ্টিগত উদ্যোগ জরুরী। আমি শুরু থেকে এই বিষয়টি সমন্বয়ের  কাজটি করছি। পাশাপাশি জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ,  পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদসহ সকলের সহযোগিতা তো রয়েছেই।’  

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

করোনায় ১৮৫ জনের মৃত্যু : নতুন আক্রান্ত ৮,৭৭২

বিএসএমএমইউয়ে ১ লক্ষ ৬১ হাজার ৩১৮ জনের করোনা পরীক্ষা