ভিতরে

হোয়াইট হাউসে জো বাইডেন এবং আফগান প্রেসিডেন্টের বৈঠক

আফগানিস্তানে মার্কিন সামরিক উপস্থিতির সমাপ্তির কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি শুক্রবার হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন। 
আশরাফ ঘানির সরকার তালেবান বিদ্রোহীদের ক্রমবর্ধমান হুমকিতে থাকায় প্রায় দুই দশকের মধ্যে প্রথমবার মার্কিন স্থল সমর্থন ছাড়া ঘানি সরকারের জন্য মার্কিন সহায়তার একটি উল্লেখযোগ্য প্রতিশ্রুতি আশা করছেন।
তবে দীর্ঘতম এই যুদ্ধ থেকে আমেরিকার বেরিয়ে আসার বিলম্বের যে কোন আশা ক্ষীণ হয়ে আসছে। 
বাইডেন ১১ সেপ্টেম্বরের ২০তম বার্ষিকীর মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সকল মার্কিন সৈন্য সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তিনি বিশ্বাস করেন এখানে আর কোন অর্জন সম্ভব হবে না।
এপ্রিলে ঘোষিত মার্কিন সেনাদের পুরোপুরি প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া এগিয়ে চলছে এবং ধারণা করা হচ্ছে সর্বশেষ প্রায় ২,৫০০ মার্কিন সেনা এবং ১৬ হাজার বেসামরিক কর্মীকে জুলাই মাসে প্রত্যাহার করা হবে। 
হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র কারিন জাঁপিয়ের বৃহস্পতিবার বলেন,‘আফগান জনগণ এবং জাতীয় নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতি আমাদের চলমান অঙ্গীকার এবং সমর্থনের বিষয়ে প্রথম এই বৈঠক হচ্ছে।’
তালেবানদের সঙ্গে ক্ষমতার ভাগাভাগিতে সমঝোতার আলোচনায় দায়িত ¡পালনকারী ঘানি এবং আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে পৌঁছেছেন। তালেবানরা দেশটির বিভিন্ন এলাকার নিয়ন্ত্রন অব্যাহত রেখেছে। এতে ব্যাপক অনিশ্চতা দেখা দিয়েছে। তালেবানরা পুনরায় ক্ষমতায় এলে ১৯৯৬-২০০১ সালের অবস্থায় ফিরে যেতে পারে। 
ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল বর্তমানে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘটনাকে ‘১৯৭৩ সালে ভিয়েতনাম থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘটনার সঙ্গে তুলনা করেছে।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

কোভিড সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সিডনির বিভিন্ন এলাকায় লকডাউনের নির্দেশ

চেক প্রজাতন্ত্রে টর্নেডোয় ৩ জনের প্রাণহানি, কয়েক ডজন আহত