ভিতরে

স্পেজিয়ার সাথে ড্র করেও সিরি-এ শিরোপার আরো কাছে ইন্টার

অধিনায়ক ও গোলরক্ষক সামির হানডানোভিচের আরো একটি ভুলের কারনে তলানির দিকে থাকা স্পেজিয়ার সাথে ১-১ গোলে ড্র করে সিরি-এ লিগের শিরোপা জয়েল পথে ভালভাবেই এগিয়ে রযেছে ইন্টার মিলান। এই ড্রয়ে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসি মিলানের থেকে ১০ পয়েন্ট এগিয়ে ইতালিয়ান লিগ টেবিলের শীর্ষস্থানটি শক্তিশালী করেছে এন্টোনিও কন্টের দল। লিগে বাকি রয়েছে আর মাত্র ৬ রাউন্ড।
বিতর্কিত ইউরোপীয়ান সুপার লিগে অংশগ্রহন ও পরবর্তীতে তার থেকে নাম প্রত্যাহারের পর এই প্রথম মাঠে নেমেছিল ইন্টার। কিন্তু নিজেদের নামের প্রতি মোটেও সুবিচার করতে পারেনি কন্টে বাহিনী। দিনের শুরুতে তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এসি মিলান ঘরের মাঠে কাল সাসুলোর কাছে ২-১ গোলে পরাজিত করেছে। সে কারনে ইন্টারের সামনে সুযোগ ছিল নিজেদের আরো এগিয়ে নিয়ে যাবার।
রোববার আত্মঘাতি গোলে নাপোলির সাথে ১-১ গোলে ড্র করে এবারের লিগে টানা ১১ ম্যাচে জয়ের ধারা থেকে বেরিয়ে এসেছিল ইন্টার। ঐ ম্যাচে হানডানোভিচের আত্মঘাতি গোলে প্রথমার্ধে পিছিয়ে পড়েছিল ইন্টার। কালও স্তাদিও আলবার্তো পিকোর মাঠে ১২ মিনিটে দিয়েগো ফারিয়াসের শট হানডানোভিচের হাতের নীচ দিয়ে জালে জড়ালে এগিয়ে যায স্বাগতিক স্পেজিয়া। ৩৯ মিনিটে আচরাফ হাকিমির ক্রসে ইভান পেরিসিচ গোল করে সমতা ফেরান। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় ইন্টারের হয়ে পেরিসিচের এটি ২০০তম ম্যাচ। রেলিগেশন জোন থেকে এখন পাঁচ পয়েন্ট দুরে রয়েছে স্পেজিয়া।
এদিকে আলিয়াঁজ স্টেডিয়ামে পার্মার বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও ৩-১ গোলের জয় নিশ্চিত করে টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। এই জয়ে শীর্ষ চারে টিকে থাকার আশা জিইয়ে রাখলো জুভেন্টাস। ফুল-ব্যাক এ্যালেক্স সান্দ্রোর দুই গোলের পাশাপাশি মাথিয়াস ডি লিটের ৬৮ মিনিটের গোলে জুভেন্টাসের জয় নিশ্চিত হয়। এর আগে ২৫ মিনিটে গ্যাস্টন ব্রাগম্যানের ফ্রি-কিক পার্মাকে এগিয়ে দিয়েছিলো।
বিতর্কিত ইউরোপীয়ান সুপার লিগে ইতালিয়ান ক্লাব হিসেবে ইন্টার মিলান, এসি মিলান ও জুভেন্টাস খেলার নিশ্চয়তা দিলেও গতকাল তারা নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে।
সান সিরোতে বদলী খেলোয়াড় গিয়াকোমো রাসপাডোরির জোড়া গোলে কপাল পুড়েছে মিলানের। ৩০ মিনিটে জার্মান মিডফিল্ডার হাকান কালহানগ্লুর কোনাকুনি শটে এগিয়ে গিয়েছিল স্বাগতিক মিলান। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ৭৬ ও ৮৩ মিনিটে রাসপাডোরির পরপর দুই গোলে সাসুলোর জয় নিশ্চিত হয়। দ্বিতীয় স্থানে থাকা মিলান বছরের শুরুতে শিরোপা ঁৌড়ে শক্তিশালী অবস্থানে থাকলেও এখন তাদের সামনে শীর্ষ চারে টিকে থাকাই কঠিন হয়ে পড়েছে।
সাসুলোর কোচ রবার্তো ডি জেরবি ম্যাচের শুরুতে জানিয়েছিলেন ইউরোপীয়ান সুপার লিগে মিলান অংশ নিলে তার দল মিলান সফর বাতিল করবে। গতকাল ম্যাচের শুরুতে মিলানের কিংবদন্তী খেলোয়াড় ও ক্লাব পরিচালক পাওলো মালদিনি বিতর্কিত সুপার লিগের সাথে তার ক্লাবে সম্পৃক্ততার কারনে সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। এ সম্পর্কে মালদিনি বলেন, ‘পুরো বিষয়টি যতটা আমাদের হাতে ছিল তার থেকে অনেক বেশী নির্ভর করছিল উচ্চ পর্যায়ের নীতি নির্ধারকদের সিদ্ধান্তের ওপর। আমি পুরো পরিস্থিতি নিয়ে দারুন অস্বস্তিতে ছিলাম। কিন্তু এজন্য আমিও দায়ী, সে কারনেই সমর্থকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। শুধুমাত্র মিলান সমর্থকদের কাছেই নয় আমার এই ক্ষমা প্রার্থনা পুরো বিশ্বের ফুটবল ভক্তদের কাছে।’

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

ইকার্দির হ্যাটট্রিকে ফরাসি কাপের সেমিফাইনালে পিএসজি

মানসম্পন্ন কর্মসংস্থান তৈরির জন্য বিশ্বব্যাংকের ২৫০ মিলিয়ন ডলারের ঋণ