ভিতরে

সিরি-এ: মোরাতার দুই গোলে জুভেন্টাসের জয়

আলভারো মোরাতার দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও ল্যাজিওকে সিরি-এ লিগে ৩-১ গোলে পরাজিত করেছে জুভেন্টাস। এই ম্যাচের মাধ্যমে আগামী সপ্তাহে পোর্তোর বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬’র দ্বিতীয় লেগের ম্যাচের আগের প্রস্তুতিটা ভালই সেড়ে রাখলো তুরিনের জায়ান্টরা। প্রথম লেগের ম্যাচে পর্তুগীজ চ্যাম্পিয়নদের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়েছিল আন্দ্রে পিরলোর দল।
কালকের জয়ে শীর্ষে থাকা ইন্টার মিলানের থেকে পয়েন্টের ব্যবধান সাতে নামিয়ে এনেছে তৃতীয় স্থানে থাকা জুভেন্টাস। ডিয়ান কুলুসেভিস্কির একটি ভুল পাসে ১৪ মিনিটে জোয়াকুইন কোরেয়ার গোলে পিছিয়ে পড়েছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। বিরতির আগেই আদ্রিয়েন রাবোয়িত জুভেন্টাসের হয়ে সমতা ফেরান। এরপর স্প্যানিশ তারকা মোরাতা তিন মিনিটের মধ্যে দুই গোল করে দলের গুরুত্বপূর্ণ জয় নিশ্চিত করেন।
ম্যাচ শেষে পিরলো বলেছেন, ‘আজ আমরা ২০ মিনিট দেরীতে ম্যাচ শুরু করেছিলাম। এটা স্বাভাবিক বিষয়, কারন দলের অনেকেই ইনজুরি থেকে ফিরেছে, আবার অনেকেই নিজেদের পজিশনে খেলতে পারেনি। কিন্তু সব মিলিয়ে আমরা দারুনভাবে ল্যাজিওকে প্রতিরোধ করেছি। শেষ পর্যন্ত ম্যাচের আবহ ধরে রেখেছিলাম। অনেকে অনুপস্থিত থাকা সত্বেও আজ আমরা দারুন একটি ম্যাচ উপহার দিয়েছি। আমাদের জন্য এটাই ফাইনাল। সব মিলিয়ে আমরা দারুন খুশী।’
পাওলো দিবালা এখনো ইনজুরির কারনে দলের বাইরে রয়েছে। তার সাথে আরো রয়েছেন ডিফেন্ডার গিওর্গিও চিয়েলিনি, মিডফিল্ডার মাথিয়াস ডি লিট। এছাড়া কোভিড পজিটিভ হওয়ায় বিশ্রামে রয়েছেন রডরিগো বেনটানকার।
তবে তিনটি ম্যাচে অনুপস্থিত থাকা হুয়ান কুয়াড্রাডো কাল মূল একাদশে খেলতে নেমেছিলেন। তার সাথে দলে ছিলেন আর্থার ও লিওনার্দো বনুচ্চি। কুলুসেভিস্কির সাথে আক্রমনভাগে ছিলেন মোরাতা, বদলী বেঞ্চে ছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো। অন্যদিকে ল্যাজিওর আক্রমনভাগে কোরেয়ার সাথে ছিলেন সিরো ইমোবিলে।
কুলুসেভিস্কির একটি ভুল পাসে আর্জেন্টাইন কোরেয়া জুভেন্টাস গোলরক্ষক ওজিচে সিজিসনিকে পরাস্ত করে ল্যাজিওকে এগিয়ে দেন। আট মিনিট পর লুইস আলবার্তোকে হতাশ করেন সিজিসনি। বিরতির ৬ মিনিট আগে মোরাতার থ্রু বল থেকে বাম পায়ের শক্তিশালী কোনাকুনি শটে পেপে রেইনাকে পরাস্ত করেন রাবোয়িত।
বিরতির পর উভয় দলই গোলের বেশ কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করেন। ফেডেরিকো চিয়েসাকে সফল হতে দেননি রেইন। কোরেয়ার বল ক্লিয়ার করেন সিজিসনি। ৫৭ মিনিটে অবশ্য মোরাতা আর কোন ভুল করেননি। ৬০ মিনিটে স্পট কিক থেকে নিজের দ্বিতীয় গোল পূরণ করার পাশাপাশি দলের জয় নিশ্চিত করেন মোরাতা। ডি বক্সের ভিতর এ্যারন রামসেকে ফাউলের অপরাধে সার্জি মিলিনকোভিচ-সাভিচের বিপক্ষে পেনাল্টি আদায় করে নেয় জুভেন্টাস।
দিনের আরেক ম্যাচে টেবিলের মাঝামাঝিতে থাকা উদিনেসের কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হয়ে ইএরাপা লিগের স্বপ্ন থেকে আরো দুরে সড়ে গেছে সাসুলো। বড়দিনের পর শেষ ১১টি লিগ ম্যাচে সাসুলো মাত্র দুটিতে জয়ী হয়ে টেবিলের নবম স্থানে নেমে গেছে। চার পয়েন্ট পিছিয়ে ১০ম স্থানে রয়েছে উদিনেস।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

বুন্দেসলিগা: লিওয়ানোদোস্কির হ্যাটট্রিকে উত্তেজনাকর ম্যাচে বরুসিয়াকে হারিয়েছে বায়ার্ন

টি-টুয়েন্টি: অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম সিরিজ জয় নিউজিল্যান্ডের