ভিতরে

ফরাসি কাপ: পিএসজি. লিঁও জয় পেলেও তৃতীয় টায়ারের দল রেড স্টারের কাছে পরাজিত লেন্স

কিলিয়ান এমবাপ্পের জোড়া গোলে ব্রেস্টকে ফরাসি কাপের শেষ ১৬’র লড়াইয়ে সহজেই পরাজিত করেছে পিএসজি। আরেক ম্যাচে লিগ ওয়ানের শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে পিএসজির সাথে সমান তালে চলতে থাকা লিঁও দ্বিতীয় বিভাগের সোচাক্সকে ৫-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে।
তবে লিগ ওয়ানের আরেক দল লেন্সকে বিদায় করে দিয়েছে রেড স্টার। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ফরাসি তৃতীয় টায়ারের এই দলটি কাল ৩-২ গোলের জয় নিয়েই বাড়ি ফিরেছে।
ব্রেস্টের মাঠে এমবাপ্পে এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরেছিলেন। ম্যাচের ৯ মিনিটেই বাম পায়ের কোনাকুনি শটে এমবাপ্পে বল জালে জড়ালে এগিয়ে যায় পিএসজি। বিরতির ঠিক আগে জুলিয়াস ড্রাক্সলারের সহায়তায় পাবলো সারাবিয়া ব্যবধান দ্বিগুন করেন। গত সপ্তাহে বোর্দুর বিপক্ষে এই স্প্যানিয়ার্ডের গোলেই জয় পেয়েছিল পিএসজি। থাইয়ের ইনজুরি কাটিয়ে কাল মাসখানেক পর প্রথমবারের মত বদলী হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তার সাথে দলে আরো ফিরেছেন মার্কো ভেরাত্তি। আগামী সপ্তাহে বার্সেলোনার বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬’র দ্বিতীয় লেগের ম্যাচকে সামনে রেখে তারকাদের দলে ফেরা নি:সন্দেহে পিএসজিকে এগিয়ে রাখবে। ভেরাত্তির এসিস্টেই এমবাপ্পে ব্রেস্ট গোলরক্ষক সেবাস্টিয়েন সিবোয়িসকে পরাস্ত করলে ৭৩ মিনিটে ব্যবধান ৩-০’তে নিয়ে যায় সফরকারীরা।
ঘরের মাঠে ১৭ বছর বয়সী রায়ান চেকরির দুই গোলে লিঁও লিগ টু’র দল সোচাক্সের বিপক্ষে বড় জয় নিশ্চিত করেছে। ম্যাচের ৮ মিনিটে আলজেরিয়ান ডিফেন্ডার ডামেল বেনলামলির গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। দুই মিনিট পর ম্যাক্সওয়েল করনেট ব্যবধান দ্বিগুন করেন। ৪১ মিনিটে ক্রিস বেডিয়া সোচাক্সের হয়ে এক গোল পরিশোধ করেন। বিরতির ঠিক আগেই লো ফিনিশিংয়ে চেকরি গোল করলে লিঁও ৩-১ গোলে এগিয়ে বিরতিতে যায়। বিরতির পরপরই বেডিয়ার দ্বিতীয় গোলে সোচাক্স কিছুটা উজ্জীবিত হয়ে উঠে। কিন্তু কর্ণার থেকে জেসন ডেনায়ার ও ম্যাচ শেষের তিন মিনিট আগে চেকরির দ্বিতীয় গোলে লিঁও আত্মবিশ^াস নিয়েই মাঠ ছাড়ে।
ঐতিহাসিক বোয়ার স্টেডিয়ামে লিগ ওয়ান টেবিলের পঞ্চম স্থানে থাকা লেন্সের বিদায় ছিল দিনের সবচেয়ে নাটকীয় ঘটনা। ২১ মিনিটে পেপে মেইসার বা’র গোলে এগিয়ে যায় রেড স্টার। লেন্সের যুব দল থেকে আসা উইঙ্গার বেঞ্জামিন গোমেলের ডান দিকের ক্রস থেকে বা দারুন ফিনিশিংয়ে রেড স্টারকে এগিয়ে দেন। ২৯ মিনিটে ইসামায়ের বোরার কর্নার থেকে ফাকুন্ডো মেডিনা লেন্সের হয়ে সমতা ফেরান। ৪৯ মিনিটে শক্তিশালী শটে সফরকারী লেন্সকে এগিয়ে দেন চেইক ডুকুরে। ৭৭ মিনিটে আক্রমনভাগে তিনটি পরিবর্তন করে দারুনভাবে লড়াইয়ে ফিরে আসে রেড স্টার। বদলী খেলোয়াড় দিয়েগো মিচেল ৮৩ মিনিটে স্বাগতিকদের হয়ে সমতা ফেরান। কিন্তু ম্যাচের নাটকীয়তা তখনো বাকি। ৯০ মিনিটে ডিজাবানার গোলে রেড স্টারের স্মরণীয় জয় নিশ্চিত হয়।
১৯২১ সালে প্রথমবারের মত ফরাসি কাপের শিরোপা জিতেছিল রেড স্টার। সর্বশেষ ১৯৪২ সালে তারা কাপ শিরোপা জয় করেছিল।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

গাভাস্কার এখনো আমার নায়ক : টেন্ডুলকার

লা লিগা: রোনাল্ডোর বদলী হিসেবে ইকার্দিকে দলে চায় জুভেন্টাস