ভিতরে

প্রত্নস্থলগুলোকে সংরক্ষণপূর্বক পর্যটনবান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

মুন্সিগঞ্জ ,৩ মার্চ, ২০২১: সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, প্রত্নস্থলগুলোকে সংরক্ষণপূর্বক পর্যটনবান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে।
তিনি বলেন,‘ আমাদের বাংলাদেশের রয়েছে হাজার বছরের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস ও ঐতিহ্য। উয়ারী-বটেশ্বরসহ মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীস্থ নাটেশ্বর দেওলের প্রত্নতাত্বিক উৎখননে সেটির প্রমাণ মিলেছে। বিশ্বব্যাপী পর্যটকদের গন্তব্যসমূহ বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, প্রত্নস্থল ও প্রত্নতাত্বিক ঐতিহ্যবাহী স্থানসমূহে পর্যটকদের সমাগম সবচেয়ে বেশি। সে বিষয়টি লক্ষ্য রেখে আমাদের দেশের প্রত্নস্থলসমূহকে যথাযথ সংরক্ষণপূর্বক পর্যটনবান্ধব করে গড়ে তোলা হচ্ছে।’
প্রতিমন্ত্রী আজ দুপুরে মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলায় রঘুরামপুর প্রতœতাত্ত্বিক জাদুঘর উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
প্রধান অতিথি বলেন, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন মুন্সিগঞ্জ জেলার ইতিহাস-ঐতিহ্য সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। বিক্রমপুরের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও প্রত্নতাত্বিক নিদর্শন সংরক্ষণের লক্ষ্যে ১৯৯৮ সালের ২৪ এপ্রিল যাত্রা শুরুকরে এ সংগঠন। লৌহজংয়ের কনকসারে পাঠাগার স্থাপনের মধ্য দিয়ে এর কার্যক্রম শুরু হয়।
সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের উল্লেখযোগ্য কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে- শ্রীনগরের রঘুরামপুর ও নাটেশ্বর গ্রামে প্রতœতাত্ত্বিক খনন কাজ। এসব খননে প্রাচীন বৌদ্ধবিহার আবিষ্কৃত হয়েছে। পাওয়া গেছে বহু প্রত্নতাত্বিক নিদর্শন। প্রত্নতাত্বিক সেসব নিদর্শন এবং সংগঠনের উদ্যোগে সংগ্রহ করা নিদর্শন দিয়েই গড়ে তোলা হয়েছে বিক্রমপুর জাদুঘর।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মুন্সিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের সভাপতি নূহ উল আলম লেনিন এবং বিক্রমপুর অঞ্চলে প্রত্নতাত্বিক খনন ও গবেষণা প্রকল্পের গবেষণা পরিচালক অধ্যাপক ড. সুফি মোস্তাফিজুর রহমান ।
প্রতিমন্ত্রী এর আগে মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী উপজেলার নাটেশ্বরে অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন এর প্রত্নতাত্বিক খনন প্রকল্পের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

যাচাই ছাড়া অডিট রিপোর্ট না নিতে ব্যাংকগুলোকে এনবিআর চেয়ারম্যানের আহ্বান

বাজেটে নতুন ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের কর সুবিধা দেয়ার দাবি