ভিতরে

অং সান সু চির মুক্তি দাবি মায়ানমার নিরাপত্তা পরিষদের

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থানে উদ্বেগ করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। সেই সঙ্গে গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চিসহ বন্দিদের অনতিবিলম্বে মুক্তি দাবি করেছে। দেশটিতে গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে উদ্যোগ নেওয়ার প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেছে নিরাপত্তা পরিষদ।  

বৃহস্পতিবার এক যৌথ বিবৃতিতে নিরাপত্তা পরিষদ এসব কথা বলে।  খবর রয়টার্স ও আনাদোলুর। 
 
১৫ সদস্যের পরিষদ মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ও প্রতিষ্ঠানগুলো সমুন্নত রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করেছে। সহিংসতা পরিবার, মানবাধিকার সমুন্নত রাখা এবং বাকস্বাধীনতা ও  আইনের শাসন জারি রাখার ওপর জোর দেয় নিরাপত্তা পরিষদ। 

সুশীল সমাজ, সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর আরোপ করা কড়াকড়িতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে নিরাপত্তা পরিষদ।

সোমবার মিয়ানমারে নতুন পার্লামেন্টের প্রথম অধিবেশনের দিন দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থানের দুদিন পর নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠক থেকে এই বিবৃতি এলো। এর আগে চীন-রাশিয়ার বাধায় নিরাপত্তা পরিষদে নিন্দা প্রস্তাব পাস হয়নি। 

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের এই বিবৃতিকে স্বাগত জানিয়েছেন ব্রিটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব। তিনি বলেছেন, আজ নিরাপত্তা পরিষদ যৌথ বিবৃতিতে স্পষ্ট করল যে, অং সান সু চিকে অবশ্যই মুক্তি দিতে হবে।  সেই সঙ্গে মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে সমুন্নত রাখতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে। 

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

যৌতুক দাবী এবং নির্যাতনের অভিযোগে চিকিৎসক গ্রেপ্তার

কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের ৪৯ বছর পূর্তি