ভিতরে

মোমেন-ক্লেভারলি আলোচনা : রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে যুক্তরাজ্যের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত 

ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে তার সরকারের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন।
আজ শনিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাহরাইনে ১৮তম আইআইএসএস মানামা সংলাপের দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠককালে তিনি এ আশ্বাস দেন।
ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহায়তা অব্যাহত রাখার জন্য বাংলাদেশের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
বৈঠকে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তন, মানবাধিকার, সামাজিক ন্যায়বিচার, গণতন্ত্র ও রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধসহ পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।
তারা উভয় দেশের জনগণের অভিন্ন মূল্যবোধ, বিশ্বাস ও সংস্কৃতির ভিত্তিতে বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে চমৎকার সম্পর্কের বিষয়টিও নিশ্চিত করেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রীদ্বয় আঞ্চলিক শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার পাশাপাশি বৈশ্বিক জ্বালানি ও খাদ্য সরবরাহ চেইন পুনরুদ্ধার করতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের দ্রুত সমাধানের জরুরি প্রয়োজনের ওপরও জোর দেন।
বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আন্তর্জাতিক ফোরামে অসংখ্য বহুপক্ষীয় ইস্যুতে পারস্পরিক সমর্থন ও সহযোগিতার জন্য ব্রিটিশ সরকারের প্রতি তার কৃতজ্ঞতা পুনর্ব্যক্ত করেন এবং সেক্রেটারি ক্লেভারলিকে যথা শিগগির সম্ভব বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।
ড. মোমেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে পুনঃনিয়োগের জন্য ক্লেভারলিকে অভিনন্দন জানান এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যুক্তরাজ্য থেকে বিশেষ করে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় তৎকালীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রধানমন্ত্রী স্যার এডওয়ার্ড হিথের পক্ষ থেকে সহায়তার কথা স্মরণ করেন।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

বাংলাদেশ-ভারত পারস্পারিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে : স্পিকার

শেষ দল হিসেবে কাতারে পৌঁছেছে ব্রাজিল