ভিতরে

দেশে প্রথম স্নায়ুরোগ চিকিৎসা পেলো শিশু রাইয়ান

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো দুরারোগ্য স্নায়ুরোগ স্পাইনাল মাস্কুলার এট্রফি (এসএমএ) রোগের চিকিৎসা শুরু হয়েছে।
চিকিৎসা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ২২ মাস বয়সী শিশু রাইয়ানকে দুরারোগ্য এই রোগের চিকিৎসায় জিন থেরাপি দেওয়া হয়েছে। রাইয়ান মানিকগঞ্জের বাসিন্দা।
আজ মঙ্গলবার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে শিশুর ইনজেকশন থেরাপিতে সরাসরি যুক্ত ডা. চৌধুরী মোহাম্মদ ফুয়াদ গালিব এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, সকাল ১০টায় রাইয়ানকে এ ইনজেকশন দেওয়া হয়। তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। প্রায় একঘণ্টা ধরে তাকে ক্যানোলার মাধ্যমে দুরারোগ্য স্নায়ুরোগ স্পাইনাল মাস্কুলার এট্রফির (এসএমএ) ওষুধ শরীরে দেওয়া হয়।  
মোহাম্মদ ফুয়াদ গালিব জানান, অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে এটি নির্ধারণ করা যায়। বিশ্বে এ পর্যন্ত দুই হাজার ৩০০ বাচ্চাকে এই চিকিৎসা দেয়া হয়েছে- এরমধ্যে একজন মারা গেছে। বাংলাদেশে রাইয়ানই হচ্ছে প্রথম কোনো রোগী- যাকে এই চিকিৎসা দেওয়া হলো। রাইয়ানকে যে ওষুধ দেওয়া হয়েছে, তার প্রতি ডোজের দাম প্রায় ২২ কোটি টাকা- যা বিনামূল্যে দিয়েছে বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান নোভার্টিস।
এ সময়ে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসাইয়েন্সেস ও হাসপাতাল (নিনস)-এর পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

অপব্যবহার রোধে ফেসবুককে আরও কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

গত ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু নেই