ভিতরে

ইনজুরির কারণে যারা খেলতে পারছেন না আসন্ন ফিফা বিশ্বকাপ

আগামী মাসে কাতার বিশ^কাপ মাঠে গড়াতে এখন শুধু কয়েকদিনের অপেক্ষা। কিন্তু ইতোমধ্যেই ইনজুরি দূর্ভাগ্যে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ হয় গেছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকজন তারকাও রয়েছে।
ইনজুরির তালিকায় থাকা তারকারা হলেন :
দিয়োগো জোতা : লিভারপুল ম্যানেজার জার্গেন ক্লপ নিশ্চিত করেছেন তার দলের পর্তুগীজ ফরোয়ার্ড দিয়োগো জোতার এবারের বিশ^কাপে মাঠে নামা হচ্ছেনা। ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগে ১-০ গোলের জয়ের ম্যাচটিতে গুরুতর পেশীর ইনজুরিতে পড়েছেন জোতা। ক্লপ অবশ্য নিশ্চিত করেছেন এই মুহূর্তে জোতার কোন অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন নেই।
এন’গোলো কান্তে : হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে বিশ^কাপ থেকে ছিটকে গেছেন ফ্রান্সের তারকা মিডফিল্ডার এন’গোলো কান্তে। আগস্টে সর্বশেষ টটেনহ্যাম হটস্পারের বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন ৩১ বছর বয়সী এই চেলসি মিডফিল্ডার। 
রেসি জেমস : চেলসির আরো এক খেলোয়াড় রেসি জেমসও কাতারে খেলতে পারছেন না। ইংল্যান্ডের এই ২২ বছর বয়সী রাইট-ব্যাক চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এসি মিলানের বিপক্ষে ম্যাচে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়েছেন। চেলসির নব নিযুক্ত কোচ গ্র্যাহার পটার জানিয়েছেন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে রেসির অন্তত এক মাস সময় লাগবে। এ কারনে কাতার বিশ^কাপের প্রস্তুতি তার জন্য অনেকটাই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। 
পাওলো দিবালা : রোমার এই আর্জেন্টাইন এই এ্যাটাকার লিসের বিপক্ষে পেশীর ইনজুরিতে পড়ে সিরি-এ লিগে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন। রোমা ম্যানেজার হোসে মরিনহো বলেছেন দিবালার ইনজুরির মাত্রা কিছুটা গুরুতর। আর সে কারনেই আগামী বছরের আগে তার মাঠে ফেরা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন পরীক্ষার মাধ্যমে জানা গেছে যে ধরনের ইনজুরি দিবালার হয়েছে তাতে বিশ্বকাপের আগে নিজেকে ফিট প্রমান করা খুবই কঠিন। 
রোনাল্ড আরাওজো : সেপ্টেম্বরে ইরানের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে ডান উরুর লিগামেন্ট ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে উরুগুয়ের ডিফেন্ডার রোনাল্ড আরাওজো। ম্যাচটিতে উরুগুয়ে ১-০ গোলে পরাজিত হয়। বার্সেলোনার এই খেলোয়াড় পরবর্তীতে ফিনল্যান্ডে অস্ত্রোপচার করিয়েছেন। বর্তমানে তিনি পনুর্বাসন প্রক্রিয়ায় রয়েছে। বিশ^কাপের আগে তার সুস্থ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা একেবারেই ক্ষীণ। 
রাউল জিমিনেজ : কুঁচকির ইনজুরিতে পড়া মেক্সিকোন রাউল জিমিনেজ গত ৩১ আগস্ট থেকে ক্লাব কিংবা জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন। জাতীয় দলের কোচ জেরার্ডো মার্টিনো বলেছেন, আন্তর্জাতিক বিরতির আগে তিনি উল্ফসের এই ফরোয়ার্ডকে দলে পেতে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করেছিলেন। সম্প্রতি মাথার ইনজুরি কাটিয়ে জিমিনেজ দলে ফিরেছিলেন। 
আলেক্সান্দার ইসাক : সুইডেনের ২৩ বছর বয়সী স্ট্রাইকার আলেক্সান্দার ইসাক সম্প্রতি বিশ^কাপ থেকে ছিটকে গেছেন। নিউক্যাসেলের এই ফরোয়ার্ড সেপ্টেম্বরে আন্তর্জাতিক বিরতির সময় জাতীয় দলের অনুশীলনে উরুর ইনজুরিতে পড়ে দল থেকে বাইরে চলে যান। নিউক্যাসেল ম্যানেজার এডি হাই নিশ্চিত করেছেন এ বছর আর ইসাকের মাঠে নামা হচ্ছেনা। 
এছাড়াও বিভিন্ন ইনজুরির কারনে যারা এখনো নিজেদের ফিট প্রমান করতে পারেনি তারা হলেন :
কালভিন ফিলিপস, ইংল্যান্ড (কাঁধ)
বুবাকার কামারা, ফ্রান্স (লিগামেন্ট)
আর্থার মেলো, ব্রাজিল (উরু)
পেড্রো নেটো, পর্তুগাল (গোঁড়ালি)
মার্কো রেয়াস, জার্মানী (গোঁড়ালির লিগামেন্ট)
জর্জিনিও উইজনালডাম, নেদারল্যান্ড (টিবিয়ার হাড়ে চিড়)
 
ইনজুরির শঙ্কার রয়েছেন :
 
পল পগবা- হাঁটুর ইনজুরি কাটিয়ে ফরাসি মিডফিল্ডার পল পগবার বিশ^কাপ এখনো শঙ্কার মুখে। গ্রীষ্মে জুভেন্টাসের যাবার পর থেকে এই ইনজুরির কারনে এখনো তিনি মাঠে নামতে পারেননি।
 
কাইল ওয়াকার – ইংল্যান্ডের রাইট-ব্যাক কাইল ওয়াকার কুঁচকির ইনজুরিতে ভুগছেন। মাসের শুরুতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগে ৬-৩ জয়ের ম্যাচটিতে প্রথমার্ধে ইনজুরিতে পড়ে মাঠের বাইরে চলে আসেন এই সিটি ডিফেন্ডার। ৩২ বছর বসয়ী ওয়াকার অবশ্য সম্প্রতি বলেছেন কাতার বিশ^কাপের আগে নিজের ফিটনেস ফিরে পাবার ব্যপারে তিনি আশাবাদী। 
এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া – উরুর ইনজুরির কারনে আর্জেন্টাইন উইঙ্গার এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার বিশ^কাপে খেলা নিয়ে সংশয় রয়েছে। জুভেন্টাসের এই খেলোয়াড় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মাকাবি হাইফরা বিপক্ষে হতাশাজনক পরাজয়ের ম্যাচটিতে ইনজুরিতে পড়েছিলেন অভিজ্ঞ ডি মারিয়া। নভেম্বরের শুরুতে তার মাঠে ফেরার ইঙ্গিত রয়েছে। 

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

সিরি-এ: এম্পোলিকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিল জুভেন্টাস

চায়না থেকে বিশ্বকাপের উপহার পেল কাতার