ভিতরে

ভোলায় ইলিশ আহরণের দায়ে ২৯ জেলে আটক

 জেলার উপজেলা সদরে আজ সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ আহরণের দায়ে ২৯ জেলেকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত উপজেলা মৎস্য অফিস এবং নৌ পুলিশের পৃথক অভিযানে মেঘনা ও তেঁতুলীয়া নদীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে এদের আটক করা হয়। এসময় ১৭ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, ২৫ কেজি মা ইলিশ ও ৫টি ট্রলার জব্দ করা হয়।
সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো: জামাল হোসেন বাসস’কে জানান, মৎস্য বিভাগের উদ্যোগে সদরের তেঁতুলীয়া নদীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১১ জেলেকে আটক করা হয়। এর মধ্যে ৭ জনকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড ও একজনকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: তৌহিদুল ইসলাম। এছাড়া ৩ জেলে অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। 
তিনি জানান, এসময় ৪টি ট্রলার, ১৫ কেজি মা ইলিশ ও ৭ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে। জাল পুড়িয়ে বিনষ্ট, মাছ অসহায়দের মাঝে বিতরণ ও ট্রলার নিলামে বিক্রি করা হয়েছে।
ইলিশা নৌ থানার পরিদর্শক (ওসি) মো: আখতার হোসেন জানান, আজ সকালে সদরের মেঘনা নদীর ভোলার চর নামক স্থান থেকে ইলিশ শিকারের দায়ে ১৮ জেলেকে আটক করা হয়েছে। অভিযানে ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, ২০ কেজি ইলিশ ও একটি ট্রলার জব্দ করা হয়। আটক দের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা পক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম ৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন দেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

যশোরের শার্শা সীমান্তে ৪৩টি স্বর্ণের বার উদ্ধার

নাটোরে জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ