ভিতরে

আরও বড় কিছু করার লক্ষ্য গাঙ্গুলীর

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি আর থাকছেন না সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। বিসিসিআইয়ের সভাপতি হবার দৌঁড় থেকে ছিটকে যাওয়ার  পর প্রথম মুখ খুললেন গাঙ্গুলী।
গতকাল ভারতের একটি বেসরকারি ব্যাংকের অনুষ্ঠানে গাঙ্গুলী জানান, বিসিসিআইয়ের বড় পদে আর না থাকা হলেও, জীবনে আরও ‘বড় কিছু’ করার লক্ষ্য।
সাংবাদিকদের গাঙ্গুলী বলেছেন, ‘আমি ভারতের হয়ে খেলার পর, বাংলার ক্রিকেট সংস্থার সভাপতি হয়েছি। এরপর বিসিসিআইর সভাপতি হয়েছি। ভবিষ্যতে আরও বড় কিছু করবো। তবে ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ১৫ বছর আমার জীবনের সব থেকে ভাল সময়। কিন্তু সারা জীবন ধরে কেউ প্রশাসক থাকতে পারে না।’
ভবিষ্যতে কি করবেন, সেটি না বললেও, আবার সবকিছু শূন্য থেকে করতে হবে বলে জানান গাঙ্গুলী, ‘সবাই শেষটাই দেখে। কিন্তু বোঝার চেষ্টা করে না, আমাদের সবাইকে শূন্য থেকে শুরু করতে হয়। প্রশাসক হিসাবে হয়তো এখানেই ইতি। এখন হয়তো আমাকে নতুন ভূমিকায় দেখা যাবে। সেখানেও শূন্য থেকে শুরু করতে হবে।’
২০১৯ সাল থেকে বিসিসিআইর সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন গাঙ্গুলী। গত তিন বছরে নিজের সাফল্যের কথা বলতে গিয়ে গাঙ্গুলী বলেন, ‘কোভিডের মতো দুঃসময়ে সফল ভাবে আইপিএল আয়োজন করেছি আমরা। কমনওয়েলথ গেমসে ভারতের মহিলা ক্রিকেট দল রৌপ্য পেয়েছে। ভারতের পুরুষ দল বিদেশের মাটিতে দুর্দান্ত সব সাফল্য পেয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেটে একটা অন্য রকম শক্তি দেখা যাচ্ছে।’
জীবনে সাফল্য পেতে হলে একটি করে পদক্ষেপ নেয়া উচিত বলে মনে করেন ‘মহারাজ’ গাঙ্গুলী। নিজের জীবনেও তাই করেছেন তিনি, ‘ছোট-ছোট লক্ষ্য নিয়ে এগিয়েছিলাম। লম্বা যাত্রায় সফল হতে হলে, ছোট-ছোট পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে যেতে হয়। শুরুতেই এক লাফে সাফল্যে পেতে চাইলে তা সম্ভব নয়। এক দিনে কেউ শচিন টেন্ডুলকার বা নরেন্দ্র মোদি হয়নি।’
গাঙ্গুলীর জায়গায় বিসিসিআইর নতুন সভাপতি হচ্ছেন ১৯৮৩ সালে বিশ্বকাপ জয়ী ভারতের অলরাউন্ডার রজার বিনি। আগামী ১৮ অক্টোবর মুম্বাইতে বিসিসিআইয়র বার্ষিক সাধারণ সভায় বোর্ডের দায়িত্ব নিবেন ৬৭ বছর বয়সী বিনি।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের টিকিট শেষ

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিশ্বকাপ দলে পরিবর্তন নিয়ে জানানো হবে : মিনহাজুল