ভিতরে

রিয়াদের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধের আহ্বান শীর্ষ মার্কিন ডেমোক্রেটের

যুক্তরাষ্ট্রের এক শীর্ষ সিনেটর সোমবার জ্বালানি তেলের উৎপাদন কমানোর মাধ্যমে ইউক্রেনে রাশিয়ার যুদ্ধের পক্ষে ‘পরোক্ষ’ সমর্থন জানানোর কারণে সৌদি আরবের সাথে ওয়াশিংটনের সকল সহযোগিতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। 
খবর এএফপি’র।
রিয়াদ, মস্কো ও অন্য শীর্ষ তেল উৎপাদনকারী দেশ অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম বাড়াতে উৎ্পাদন কমানোর ব্যাপারে গত সপ্তাহে সম্মত হয়েছে। তাদের এমন পদক্ষেপের যুক্তরাষ্ট্র নিন্দা জানায়। তেল উৎপাদনকারী শীর্ষ দেশগুলোর এমন সিদ্ধান্তের ফলে মস্কো ফায়দা লুটবে এবং বিশ্ব অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।
ফরেন রিলেশন কমিটির সভাপতি সিনেটর বব মেনান্দেজ এক বিবৃতিতে বলেন, ‘এক্ষেত্রে সহজ কথা হচ্ছে এই সংঘাত প্রশ্নে উভয় পক্ষে ভূমিকা রাখার কোন সুযোগ নেই। এক্ষেত্রে হয় আপনাকে একটি দেশের মানচিত্রে সহিংসতা চালানোর মাধ্যমে নিশ্চিহ্ন করার যুদ্ধাপরাধ বন্ধে চেষ্টা করা, না হয় আপনাকে তাকে সমর্থন করতে হবে।র্’ 
‘সৌদি আরব নিজেদের অর্থনৈতিক স্বার্থে ভীতিকর পরের সিদ্ধান্তটি বেছে নিয়েছে।’
সৌদি নেতৃত্বাধীন ওপেক ব্যবসায়ী জোটের ১৩টি দেশ এবং রাশিয়ার নেতৃত্বে এর ১০ মিত্র দেশ নভেম্বর থেকে প্রতিদিন দুই লাখ ব্যারেল জ্বালানি তেল উৎপাদন কমানোর ব্যাপারে সম্মত হয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে এর ফলে বিশ্বব্যাপী তেলের দাম বেড়ে যেতে পারে।
এমন পরিস্থিতিতে মেনান্দেজ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের অবশ্যই দ্রুততার সাথে যেকোন অস্ত্র বিক্রি ও নিরাপত্তা সহায়তাসহ সৌদি আরবের সাথে আমাদের সার্বিক সহযোগিতা বন্ধ করতে হবে। কারণ, যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব স্বার্থ রক্ষা করা অপরিহার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র মলদোভার আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছে : কিশিনাউ

নিউজিল্যান্ডে সমুদ্র সৈকতে আটকে পড়ে ৫শ’ পাইলট তিমি মারা গেছে