ভিতরে

প্রিমিয়ার লিগ: লিভারপুলকে হারিয়ে শীর্ষে ফিরলো আর্সেনাল, ইউনাইটেডের জয়ে রোনাল্ডোর ৭০০তম গোল

বুকায়ো সাকার দুই গোলে লিভারপুলকে রোববার ৩-২ ব্যবধানে পরাজিত করে প্রিমিয়ার লিগ টেবিলের শীর্ষে ফিরেছে আর্সেনাল। এদিকে দিনের আরেক ম্যাচে এভারটনকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এই ম্যাচে গোল করে ক্লাব ফুটবলে ৭০০তম গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো।
এমিরেটস স্টেডিয়ামে গানার্সরা তিনবার লিড নিয়েছে। গাব্রিয়েল মার্টিনেলি এক মিনিটের মধ্যে গোল করে আর্সেনালকে এগিয়ে দেন। প্রথমার্ধের স্টপেজ টাইমে দলের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন সাকা । এই দুই গোলে পরপরই ডারউইন নুনেজ ও রবার্তো ফিরমিনো লিভারপুলের হয়ে সমতা ফিরিয়েছিলেন। ৭৬ মিনিটে পেনাল্টি থেকে জার্গেন ক্লপের দলের জয় নিশ্চিত করেন সাকা। 
এনিয়ে লিগে আট ম্যাচে মাত্র দুই জয় নিয়ে আর্সেনালের থেকে ১৪ পয়েন্ট পিছিয়ে টেবিলের ১০ম স্থানে রয়েছে লিভারপুল । 
কাল ম্যাচ শেষে আর্সেনাল বস মিকেল আর্তেতা বলেছেন, ‘নিজেদের সুযোগগুলো কাজে লাগানোর ক্ষেত্রে লিভারপুল কোন ছাড় দেয়নি। কিন্তু আমরা ছেড়ে কথা বলিনি। কঠিন মুহূর্তে তাদের থেকে আমরা ম্যাচ বের করে এনেছি।’
আগামী সপ্তাহে এ্যানফিল্ডে লিভারপুল ম্যানচেস্টার সিটির মোকাবেলা করবে। কিন্তু ইনজুরির কারনে লিভারপুলের থেকে ছিটকে গেছেন লুইস ডিয়াজ ও ট্রেন্ট আলেক্সান্দার-আর্নল্ড। ক্লপ বলেছেন, ‘আমরা এখনই টেবিলের দিকে তাকাচ্ছি না। কিন্তু আমরা নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে জানি। আমরা শীর্ষ অবস্থানে নেই। কিন্তু এর থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।’
এই জয়ে সিটিকে এক পয়েন্টের ব্যবধানে পিছনে ফেলেছে আর্সেনাল। গত সপ্তাহে উত্তর লন্ডন ডার্বিতে টটেনহ্যামকে পরাজিত করে আর্সেনাল নিজেদের ভালভাবেই এগিয়ে নিয়ে গেছে। কাল ম্যাচের শুরুতেই গোল করে মার্টিনেলি আরো একটি জয়ের আভাষ দিয়ে রেখেছিলেন। বাকি কাজটুকু সেড়েছেন সাকা। যদিও গানারদের প্রথম দুই গোলেরই যথাযথ জবাব দিয়েছে লিভারপুল । আক্রমনভাগে চারজনকে খেলানোর সিদ্ধান্তে ক্লপ ছিলেন সফল। ৩৪ মিনিটে দিয়াজের সহায়তায় নুনেজের গোলে প্রথম সমতায় ফিরে লিভারপুল। প্রিমিয়ার লিগের প্রথম সপ্তাহের পর এটিই নুনেজের প্রথম গোল। প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে মার্টিনেলির ক্রসে সাকা আবারো গানার্সদের এগিয়ে দেন। 
বিরতির পর বদলী খেলোয়াড় ফিরমিনো এ্যারন রামসডেলের নিখুঁত ফিনিশিংয়ে  লিভারপুলকে সমতায় ফেরান। কিন্তু ম্যাচ শেষের ১৪ মিনিট আগে গাব্রিয়েল জেসুসকে ডি বক্সের মধ্যে ফাউল করে বসেন থিয়াগো আলচানতারা। স্পট কিক থেকে সাকা কোন ভুল করেননি। ২০০৪ সালের পর প্রথমবারের মত লিগ শিরোপা জয়ের স্বপ্নে বিভোর আর্সেনাল সমর্থকরা আরো একটি উজ্জীবিত জয়ের স্বাদ নিয়ে ঘরে ফিরেছে।
এদিকে দিনের আরেক ম্যাচে আরো একবার রোনাল্ডোকে বদলী বেঞ্চে বসিয়ে মূল একাদশ নিয়ে মাঠে নামিয়েছিলেন  ইউনাইটেড বস এরিক টেন হাগ। কিন্তু ২৯ মিনিটে এন্থনি মার্শালের ইনজুরিতে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর বিজয়ী রোনাল্ডোর সামনে সুযোগ আসে গোলের আরো একটি অসাধারন মাইলফলক স্পর্শের। আর সেই সুযোগটি হাতছাড়া করেননি পর্তুগীজ সুপারস্টার। গুডিসন পার্কে মাত্র ৫ মিনিটে এ্যালেক্স ইয়োবির কার্লিং শটে পিছিয়ে পড়েছিল ইউনাইটেড। কিন্তু এন্টনির গোলে দ্রুতই সমতায় ফিরে রেড ডেভিলসরা। প্রিমিয়ার লিগে তৃতীয় ম্যাচে এটি এন্টনির তৃতীয় গোল। ৪৪ মিনিটে কাসেরিমোর পাসে এভারটন গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ডকে লো শটে পরাস্ত করে রোনাল্ডো ক্লাব ফুটবলের ৭০০ গোলের কৃতিত্ব অর্জন করেন। এই জয়ে ইউনাইটেড টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে। 
দিনের শুরুতে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ঘরের মাঠে ফুলহ্যামকে ৩-১ গোলে পরাজিত করেছে ওয়েস্ট হ্যাম। ক্রিস্টাল প্যালেসও একইভাবে শুরুতে পিছিয়ে পড়েও লিডসকে ২-১ গোলে পরাজিত করে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করেছে।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

বিতর্কিত সুপার লিগ থেকে সরে আসবে না রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও জুভেন্টাস

পাকিস্তান সফরে নিউজিল্যান্ড দলের  ১৫ ম্যাচের সূচি প্রকাশ