ভিতরে

রাজনৈতিক ও আর্থিক চাপে এমবাপ্পে বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছিলেন: পেরেজ

 রিয়াল মাদ্রিদের সভাপতি ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ অভিযোগ করে বলেছেন, আর্থিক ও রাজনৈতিক চাপে বিভ্রান্ত হয়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ে (পিএসজি) থেকে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে।   
তবে ভবিষ্যতে এমবাপ্পের রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেয়ার সম্ভাবনা আছে কিনা প্রশ্ন করা হলে জবাবে পেরেজ বলেন ২৩ বছর বয়সী ওই তারকার জন্য রিয়াল মাদ্রিদের দরজা উন্মুক্ত থাকবে। পেরেজ বলেন,‘ এই এমবাপ্পে আমার এমবাপ্পে নন। তবে তার পরিবর্তনও হতে পারে। কে জানে, জীবনে হাজারো পরিবর্তন ঘটে।’ 
গত মাসে রিয়াল মাদ্রিদকে হতবাক করে দিয়ে সান্তিয়াগো বার্নব্যুতে যোগ দেয়ার পরিবর্তে বর্তমান ক্লাব পিএসজির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ আরো তিন বছর বাড়িয়ে নেন এমবাপ্পে। যার বেতন ৪০ থেকে ৫০ মিলিয়নের মধ্যে ধার্য্য করা হয়েছে বলে গণমাধ্যমের রিপোর্টে বলা হয়েছে। 
স্প্যানিশ টেলিভিশন অনুষ্ঠান এল চিরিংগুইটোতে বুধবার পেরেজ বলেন, তারা এমবাপ্পেকে আসলে ফুটবল দলের নয়, ব্যবস্থাপনায় নেতৃত্ব দেয়ার সুযোগ দিয়েছিলেন। আমরা দেখলাম, যে এমবাপ্পেকে আমরা চেয়েছিলাম সেই এমবাপ্পে নেই। চাপের মুখে পড়ে তিনি তার স্বপ্ন পরিবর্তন করেছেন।
কোন বাচ্চাকে যখন দেশের রাস্ট্রপতি ডেকে পাঠান, তখন এর প্রভাব অবশ্যই পড়ে। এটি তাকে যথেষ্ট প্রভাবিত করেছে। তবে রিয়াল মাদ্রিদে আপনি জিদানের মতো সফল হতে পারেন, এমনকি নিজ দেশের রাস্ট্রপতির গর্বের উৎসও হতে পারেন।’
পেরেজের বিশ^াস, ফ্রান্স ও কাতারের রাজনৈতিক চাপে প্রভাবিত হয়েছেন এমবাপ্পে। যেখানে যুক্ত ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাখো এবং পিএসজি সভাপতি নাসের আল খালাফি। পেরেজ বলেন,‘ আমার মতে ওই চাপ বিশেষ করে রাজনৈতিক চাপটি তাকে বেশী প্রভাবিত  করেছে। সেই সঙ্গে বিপুল অর্থের হাতছানি। যেটি তার মানষিকতায় পরিবর্তন ঘটিয়েছে। এটি ছিল তার জন্য কঠিন একটি সময়। আপনি যখন কোন একটি আতংকের মধ্যে থাকবেন, তখন চেস্টা করবেন যত দ্রুত সম্ভব সেটি থেকে বেরিয়ে আসতে। বিষয়টি আমি অনুভব করতে পেরেছি। তবে আমি ভাবতেও পারিনা স্পেনের একজন রাজা স্প্যানিশ ক্লাবের খেলোয়াড়কে ডেকে বলবে তুমি ক্লাবেই থাকবে।
এমবাপ্পের ঘটনায় দুটি রাস্ট্র জড়িত। একটি কাতার এবং অন্যটি ফ্রান্স। আমি ২০০০ সাল থেকে এখানে আছি, তবে কখনো এমনটি হতে দেখিনি যে একটি দেশের রাস্ট্রপতি একজন খেলোয়াড়কে ডেকে পাঠিয়েছেন। ফ্রান্সে না খেলেও আপনি বিশ^মানের খেলোয়াড় হতে পারেন, যেমনটা হয়েছেন জিদান বা করিম বেনজেমা।’
ভবিষ্যতে এমবাপ্পের রিয়ালে যোগ দেয়ার সম্ভাবনা প্রসঙ্গে প্রশ্নের জবাবে পেরেজ বলেন, ‘আমি বেশ শান্তভাবে বলছি, জীবন এখনো শেষ হয়ে যায়নি।’

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

ওয়ানডে : বোলারদের নৈপুন্যে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে সমতা আনলো শ্রীলংকা

ইংল্যান্ডের টেস্ট দলে যমজ ভাই জেমি ও ক্রেইগ