ভিতরে

আওয়ামী লীগ নেতা টিপু হত্যা মামলায় মুসাসহ তিনজন রিমান্ডে

 রাজধানীর শাহজাহানপুরে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপু ও কলেজছাত্রী সামিয়া আফরান প্রীতি হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত সুমন শিকদার মুসাসহ তিনজনের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 
শুক্রবার তাদের  আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য মুসার বিরুদ্ধে ফের ১২ দিন এবং ইমরান হোসেন জিতু ও রাকিবুর রহমান রাকিবের বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে মামলার তদন্ত সংস্থা ডিবি পুলিশ।
শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিট ম্যাজিস্ট্রেট আহম্মেদ হুমায়ুন কবির মুসার ৪ দিন এবং ইমরান হোসেন জিতু ও রাকিবুর রহমান রাকিবের ২ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 
এরআগে শুক্রবার (১০ জুন) মুসাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর তার বিরুদ্ধে ১৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে মামলার তদন্ত সংস্থা ডিবি পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিট ম্যাজিস্ট্রেট ফারাহ দিবা ছন্দা তার ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
টিপু ও প্রীতি হত্যার ঘটনায় বগুড়া থেকে গ্রেফতারকৃত শুটার মাসুম মোহাম্মদ ওরফে আকাশের স্বীকারোক্তিমূলক জবাববন্দিতে মূল পরিকল্পনাকারী ও সমন্বয়কারী হিসেবে মুসার নাম আসে। পরে জানা যায়, মুসা ঘটনার আগেই ১২ মার্চ দেশ ছেড়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত চলে যান। তার সন্ধান পেতে গত ৬ এপ্রিল পুলিশ সদর দপ্তরের এনসিবি শাখায় যোগাযোগ করে ডিবি পুলিশ। 
পুলিশ সদর দপ্তর ৮ এপ্রিল মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে ইন্টারপোলের মাধ্যমে যোগাযোগ শুরু করে। এরমধ্যে ৮ মে জানা যায়, মুসা দুবাই থেকে ওমানে প্রবেশ করেছে। ইন্টারপোলের ওমান পুলিশ এনসিবির সহযোগিতায় গত ১২  মে মুসাকে গ্রেফতার করে। বাংলাদেশ পুলিশের একটি টিম ওমানে গিয়ে বৃহস্পতিবার (৯ জুন) মুসাকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসে। 
গত ২৪ মার্চ রাত সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরে ইসলামী ব্যাংকের পাশে বাটার শো-রুমের সামনে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপুকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এসময় গাড়ির পাশে রিকশায় থাকা সামিয়া আফরান প্রীতি (১৯) নামে এক কলেজছাত্রীও নিহত হন। এছাড়া টিপুর গাড়িচালক মুন্না গুলিবিদ্ধ হন। 
চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকান্ডের পর ওইদিন রাতেই শাহজাহানপুর থানায় নিহত টিপুর স্ত্রী ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সংরক্ষিত কাউন্সিলর ফারহানা ইসলাম ডলি বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এতে অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়। 
মামলার এজাহারে টিপুর স্ত্রী অভিযোগ করেন, ২৪ মার্চ রাত সোয়া ১০টার দিকে শাহজাহানপুর থানার ২০২ উত্তর শাহজাহানপুর মানামা ভবনের বাটার দোকানের সামনে পৌঁছামাত্র দুর্বৃত্তরা তার স্বামীর ওপর হামলা করেন। সন্ত্রাসীরা তার স্বামী জাহিদুল ইসলাম টিপুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে বলেও মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়। 

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট

একটি মন্তব্য

গত ২৪ ঘন্টায় করোনা বেড়েছে দশমিক ৫১ শতাংশ

চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক