ভিতরে

জয়পুরহাটে পরিত্যক্ত স্থানে সবজি চাষে সফলতা অর্জন আমিনা বেগমের

বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত স্থানে সবজি চাষ করে সফলতা অর্জন করেছেন জেলার পাঁচবিবি উপজেলার কড়িয়া গ্রামের আমিনা বেগম। 
প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা এক ইঞ্চি জায়গাও যেন পতিত না থাকে, সরকারের  পাশাপাশি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গুলোও  এ  ঘোষণা বাস্তবায়নে কাজ করছে। স্থানীয় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ’জাকস ফাউন্ডেশনের  পক্ষ থেকে সার, বীজসহ  আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতায় জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল পাঁচবিবি উপজেলার কড়িয়া গ্রামের আমিনা বেগম বাড়ির পাশের পরিত্যক্ত ৩ শতাংশ জমিতে নানা জাতের সবজি চাষ করেন। এরমধ্যে রয়েছে লালশাক, কলমি, পুঁই, ঢেঁড়স, শসা ইত্যাদি। বাজারেও যেতে হয়না, অনেক সময় জমি থেকেই বিক্রি হয় সবজি । এতে সংসারের  জন্য সবজির চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রি করে বাড়তি আয় করছেন বলে জানান, আমিনা বেগম। এবার শুধু কলমি শাক  বিক্রি করে ২ হাজার ৭৫০ টাকা বাড়তি আয় হয়েছে বলে জানান তিনি। প্রতিবেশী মাহমুদা বেগম জানান, সবজি চাষে আমিনা বেগমর সফলতা দেখে আমরাও সবজি চাষ করছি। জাকস ফাউন্ডশনের নির্বাহী পরিচালক মো: নূরুল আমিন জানান, এক ইঞ্চি জায়গাও যেন পতিত না থাকে,  বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা  বাস্তবায়নে  বসত বাড়িতে সবজি প্রদশর্নীর  আওতায় এবং পল্লীকর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের  দিক নির্দেশনায় বাড়ির পাশে পতিত জমিতে সবজি চাষে  গ্রামীণ পর্যায়ে নারীদের  সার, বীজসহ আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে। 

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

মাইগভ প্ল্যাটফর্ম সরকারি সেবা গ্রহণকারীদের ভোগান্তি কমিয়েছে

৮ আগস্ট থেকে পোশাককর্মিদের টিকাদান শুরু