ভিতরে

ইরাকে ঈদের ছুটির প্রাক্কালে জনাকীর্ণ বাজারে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৩০

ইরাকের রাজধানীর একটি ব্যস্ততম বাজারে সোমবার বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৩০জন নিহত ও আরো অনেক লোক আহত হয়েছেন। ঈদুল আযহার ছুটি পালনের প্রাক্কালে এ ভয়াবহ হামলা চালানো হয়। ইসলামিক স্টেট গ্রুপ মঙ্গলবার প্রথম প্রহরে হামলার দায় স্বীকার করেছে। হাসপাতাল সূত্র একথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।
তাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে দেয়া এক বার্তায় জঙ্গি গ্রুপটি জানায়, আবুহামজা আল-ইরাকি নামের এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী বাগদাদের পূর্বাঞ্চলীয় সদর সিটির একটি জনাকীর্ণ বাজারে সোমবার রাতে তার শরীরে বেঁধে রাখা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে কমপক্ষে ৩০ জন নিহত ও আরো ৩৫ জন আহত হন।
এএফপি’র ফটোগ্রাফার জানান, ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহার প্রাক্কালে ক্রেতারা জনাকীর্ণ ওই বাজারে কেনা কাটা করার সময় এ বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। ঘনবসতিপূর্ণ এ শহর তলীর অধিকাংশ লোক জন শিয়া অনুসারী।এটি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাগদাদে চালানো সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা গুলোর অন্যতম।
বিস্ফোরণের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করা ভিডিও ফুটেজে অনেককে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে এবং অনেককে চিৎকার করতে দেখা যাচ্ছে।
এদিকে হাসপাতাল সূত্র এ বোমা হামলায় প্রায় ৫০ জন আহত হওয়ার কথা জানিয়েছে।
ইরাকের প্রেসিডেন্ট বার্হামসালিহ সদর সিটির শিয়া অধ্যুষিত ঘন বসতিপূর্ণ ওই শহর তলীতে এ বোমা হামলার ঘটনাকে একটি ‘জঘন্য অপরাধ’ হিসেবে অভিহিত করে তার শোক প্রকাশ করেছেন।
ইরাকের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এক সন্ত্রাসী বাগদাদের পূর্বাঞ্চলীয় সদর সিটির উহিলাত মার্কেটে স্থানীয়ভাবে তৈরি একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় । 
বাগদাদ অপারেশনস কমান্ড জানায়, তারা সোমবারের হামলার ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে। এ কমান্ড হচ্ছে একটি যৌথ সামরিক ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিরাপত্তা কমিটি।
উল্লেখ্য, গত জানুয়ারিতে বাগদাদের একটি জনাকীর্ণ বাজারে দ্বৈত আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানোর দায় স্বীকার করে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ। সেখানে ভয়াবহ ওই দুই হামলায় ৩২ জন প্রাণ হারান।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে যুক্তরাজ্যের নতুন বাণিজ্য প্রকল্পের প্রস্তাব

বামপন্থী পেদ্রো ক্যাস্টিলো পেরুর প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত