ভিতরে

বান্দরবানের লামায় ২ হাজার ৮২০ দুঃস্থ পরিবার পেলো প্রধানমন্ত্রীর উপহার

বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে লামা উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের দু:স্থ ও কর্মহীন ২ হাজার ৫২০ পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত বিশেষ কর্মসূচির আওতায় তৃতীয় ধাপের করোনাভাইরাস জনিত উদ্বুত পরিস্থিতি মোকাবেলায় এসকল উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে প্রতি পরিবারের জন্য ১০ কেজি করে চাল। জেলা পরিষদ সদস্য ফাতেমা পারুল ও শেখ মাহাবুবুর রহমান প্রত্যেক ইউনিয়নে উপস্থিত থেকে প্রতি ইউনিয়নের ৩৬০ পরিবারের মাঝে পৃথক এসব উপহার বিতরণ করেন।
গত ২ জুলাই লামা সদর ইউনিয়নে বিতরণের মধ্য দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। ৭ জুলাই গজালিয়া ইউনিয়নে ৩৬০ পরিবারের মাঝে বিতরণের মাধ্যমে এ কর্মসূচির শেষ হয়। প্রত্যেক বিতরণে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল, পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাহেদ উদ্দিন ও মিল্কি রানী দাশ, স্ব-স্ব ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যসহ আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ফাতেমা পারুল বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি’র নির্দেশে করোনাভাইরাসের কারণে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের কর্মহীন ও দু:স্থ পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। পৌরসভা এলাকায়ও ১ হাজার ৮০ জন দু:স্থ ও কর্মহীন মানুষের মাঝে উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হবে।
অপরদিকে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে লামা পৌরসভা এলাকার ৩০০ দু:স্থ ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা হিসেবে নগদ টাকা প্রদান করা হয়েছে। পরিবার প্রতি ৫০০টাকা হারে কোভিড-১৯ ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ৩০০ পরিবারের মাঝে এ সহায়তা প্রদান করা হয়।
মানবিক সহায়তা বিতরণের উদ্বোধন করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রেজা রশীদ। এ সময় পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা আলী হোসেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. মজনুর রহমান, পৌরসভার কাউন্সির ও কর্মকর্তা কর্মচারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

ফেনীতে অনুষ্ঠিত হল ‘আর্ট এগেইনেস্ট করোনা’

নাঙ্গলকোটে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ১৪৩টি ঘরের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে