ভিতরে

একটি মাত্র বাঁধা পার করতে খেলোয়াড়দের প্রতি সাউথগেটের আহবান

রোববার ইতালির বিপক্ষে ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপের ব্লকবাস্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। এই ম্যাচকে সামনে রেখে আর একটিমাত্র বাঁধা পার করার জন্য শিষ্যদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন ইংলিশ কোচ গ্যারেথ সাউথগেট।
বুধবার হ্যারি কেনের অতিরিক্ত সময়ের গোলে ৫৫ বছর পর প্রথমবারের মত বড় কোন টুর্ণামেন্টের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জণ করেছে ইংল্যান্ড। একইসাথে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপে এবারই প্রথমবারের মত ফাইনালের স্বাদ পেতে যাচ্ছে ইংলিশরা। ইতালিও ১৯৬৮ সালে সর্বশেষ ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপ জয়ের কৃতিত্ব দেখিয়েছিল। সেটাই ছিল তাদের একমাত্র শিরোপা। 
ফাইনালকে সামনে রেখে ইংলিশ বস তার শিষ্যদের শেষ কাজটুকু ভালভাবে সম্পন্ন করার আহবান জানিয়েছেন। সাউথগেট বলেন, ‘এই দলটির সাথে কাজ করার আনন্দই আলাদা। যারা দলে থাকতে পারেনা তারাও সতীর্থদের দারুনভাবে সমর্থন দেয়, যোগ্য দল হিসেবেই ইংল্যান্ড ফাইনালে খেলছে। এটা তাদের প্রাপ্য ছিল। এখন আমাদের সামনে আর একটিমাত্র বাঁধা। কিন্তু কাজটা যে মোটেই সহজ হবেনা তা অনুমেয়। আমরা এমন একটি দলের বিপক্ষে মাঠে নামতে যাচ্ছি যারা দীর্ঘদিন ধরে অপরাজিত আছে। ম্যাচটির আবহ আমরা এখন থেকেই বুঝতে পারছি। কিন্তু তারপরেও আমি বলবো এটা আমাদের জন্য অসাধারণ একটি মুহূর্ত। আজ অন্তত আমরা রাতটাকে উপভোগ করি। এরপর ভাবা যাবে কি করবো বা কি করতে হবে।’
এ পর্যন্ত টানা ৩৩ ম্যাচে অপরাজিত থাকা ইতালি টুর্নামেন্টের অন্যতম যোগ্য দল হিসেবেই ফাইনালে খেলছে। কিন্তু ওয়েম্বলির ৬০ হাজার সমর্থক ফাইনালে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। ঘরের মাঠের সুবিধাটা তাই পুরোপুরি কাজে লাগাতে চায় ইংল্যান্ড। ডেনমার্কের বিপক্ষে ওয়েম্বলির দর্শকরা শেষ পর্যন্ত ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করেছে। সাউথগেটও সেটা স্বীকার করে বলেছেন, ‘আমাদের সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে যখন ম্যাচে চাপ সৃষ্টি করতে হবে ঐ মুহূর্তে সমর্থকরা আমাদেরকে সবদিক থেকে শক্তি যুগিয়েছে। আজ ম্যাচের শেষ পর্যন্ত তারাই আমাদের মূল শক্তি ছিল। একটি গোলের জন্য দীর্ঘক্ষন অপেক্ষা করতে হলে দলের মানসিকতায় তা প্রভাব ফেলে। আমি আগে কখনই ওয়েম্বলিতে এমন পরিবেশ উপভোগ করিনি। এটা সত্যিই বিশেষ কিছু।’

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

ওয়েম্বলির ফাইনালে হাজারখানেক ইতালিয়ান দর্শক লন্ডনে যেতে পারবে

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৭ জুলাই থেকে চালু হচ্ছে ক্যাটেল স্পেশাল ট্রেন