ভিতরে

চিলিকে হারিয়ে কোপার সেমি-ফাইনালে ব্রাজিল

কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালে গতকাল (বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী আজ শনিবার) ১০ জনের দল নিয়েও চিলির বিপক্ষে ১-০ গোলে জয়লাভ করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।
ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে গাব্রিয়েল জেসুস লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়ার আগে ব্রাজিলের হয়ে জয়সুচক একমাত্র গোলটি করেছেন বদলী খেলোয়াড় লুকাস পাকুয়েটা। ম্যাচের ৪৬তম মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে চিলিয়ান গোল রক্ষক ক্লদিও ব্রাভোকে পরাস্ত করেন তিনি। তবে এর দুই মিনিট পরেই ব্রাজিলীয় শিবিরে হতাশা বাসা বাঁধে জেসুসের লাল কার্ড। চিলিয়ান ফুটবলার এজেনিও মিনাকে ফ্লাইং কিক মারার দায়েই লাল কার্ড দেখতে হয়েছে জেসুসকে। 
ম্যাচ শেষে অবশ্য নেইমার ও ব্রাজিলীয় কোচ তিতে বলেছেন, জেসুস মিনাকে দেখতে পাননি এবং দুর্ভাগ্যবশত তার গায়ে লাথি পড়ে। কারণ এ সময় তিনি মধ্য মাঠে  ছিলেন। 
১০ জনে পরিণত হওয়ার পর চিলিয়ান আক্রমন সামলাতে রক্ষনে কঠোর পরিশ্রম করতে হয় ব্রাজিলকে। এ সময় ব্রাজিলীয় পোস্ট লক্ষ্য করে পরপর কয়েকটি শট নেয় চিলিয়ান স্ট্রাইকাররা। 
ব্রাজিলয় তারকা থিয়াগো সিলভা বলেন,‘ আমরা নিজস্ব কৌশলে দক্ষতার সঙ্গে রক্ষনভাগ সামলেছি। অন্যথায় আমাদেরকে আজ বেশ কয়েকটি গোল হজম করতে হতো। ১০ জনের দলে পরিণত হওয়ার পরও অবশ্য আমরা গোলের সুযোগ সৃস্টি করেছিলাম। এই দলটি এবং তাদের লড়াকু মনোভাবে আমি গর্বিত।’ 
উত্তেজনাকর প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ বিফলে যাবার পর দ্বিতীয়ার্ধে রবার্তো ফিরমিনোর বদলী হিসেবে মাঠে আসেন পাকুয়েটা। ১০ জনের দল হওয়া সত্বেও নেইমারের অসাধারণ দক্ষতা এবং দ্রুত পত্রিআক্রমনে তটস্থ ছিল চিলি। অবশ্য সমতাসুচক গোলের বেশ কিছু সহজ সুযোগ সৃস্টি করেছিল চিলি। এডুয়ার্ডো ভার্গাসের একটি গোল বাতিল হয় অফসাইডের কারণে। ৬৮ মিনিটে  ইংলিশ- চিলিয়ান বেন ব্রেরেটনের একটি শট ফিরে আসে বারে লেগে। 
ম্যাচ শেষে ক্লান্ত নেইমার বলেন, ১০ জনের দল নিয়ে খেলাটা ব্রাজিলের জন্য বিশাল একটি পরীক্ষা। কোপা আমেরিকার অন্য ম্যাচের মত গতকাল তিনি গোলের খুব একটা কাছে যেতে পারেননি। তবে বলের পজিশন নেয়ার ক্ষেত্রে ছিলেন অগ্রনি। 
নেইমার বলেন,‘ নিজেদেরকে আরো শক্তিশালী হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সব ধরনের খেলার স্বাদ গ্রহন করতে হবে। আজ প্রমান করেছি, যে কোন পরিস্থিতিতে আমরা কাজ করতে সক্ষম। আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। ম্যাচটি আমাদের জন্য বেশ কঠিন ছিল।’
চিলিয়ান তারকা আর্তুরো ভিডাল অবশ্য বলেছেন মাথা উচু করেই তাদের দলটি টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে। তিনি বলেন,‘ আমরা অসাধারণ একটি দলের কাছে হেরেছি। নিজেদের মাঠে খেলা টুর্নামেন্টের ফেভারিট দলের কাছে। আমরা যদি আজকের মত খেলতে পারতাম, আরো বেশী সময় নিয়ে অনুশীলন করতে পারতাম, তাহলে এই দলটি আরো বেশী সামর্থ্যের প্রকাশ ঘটাতো পারতো। আশা করি আমরা বিশ^কাপের জন্য কোয়ালিফাই হব। এটি কঠিন বিষয়, তবে আমরা পারব।’
সেমি-ফাইনালে পেরুর মোকাবেলা করবে ব্রাজিল। গতকাল অনুষ্ঠিত প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে তারা প্যারাগুয়েকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে পরাজিত করেছে। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা ৩-৩ গোলে সমতায় থাকায় টাইব্রেকারের মাধ্যমে নিশ্চিত হয়েছে জয় পরাজয়। 
২০১৯ সালে কোপা আমেরিকার ফাইনালে পেরুর মোকাবেলা করেছির ব্রাজিল। রিও’র মারাকানা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচেও ১০ জনের দলে পরিণত হয়েছিল ব্রাজিল। তারপরও ৩-১ গোলে জয়লাভ করেছিল স্বাগতিকরা।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

ফুটবল-কোপা : প্যারাগুয়েকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে হারিয়ে সেমিতে পেরু

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় স্থগিত বিসিবির এজিএম