ভিতরে

কারান নৈপুন্যে সিরিজ নিশ্চিত করলো ইংল্যান্ড

টি-টুয়েন্টির পর শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজও জিতলো ইংল্যান্ড। বাঁ-হাতি পেসার স্যাম কারানের নৈপুন্যে গতরাতে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ইংলিশরা ৮ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলংকাকে। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ নিশ্চিতের পাশাপাশি  ২-০ ব্যবধানে  এুিগয়ে গেল  ইয়োইন মরগানের দল। প্রথম ওয়ানডে ৫ উইকেটে জিতেছিলো ইংল্যান্ড। ৪৮ রানে ৫ উইকেট নেন কারান।
লন্ডনের কেনিংটন ওভালে টস জিতে প্রথমে বোলিং করতে নামে ইংল্যান্ড। শুরুতেই শ্রীলংকার ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেলে দেন ইংল্যান্ডের বাঁ-হাতি পেসার কারান। প্রথম ৩ উইকেটই তার পকেটে। তখন শ্রীলংকার স্কোর ১২।
শ্রীলংকার চতুর্থ উইকেট শিকার করতে সময় নেননি ডেভিড উইলি। ফলে ২১ রানে ৪ উইকেট হারায়। এরপর মিডল-অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান ধনঞ্জয়া ডি সিলভা-ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা-দাসুন শানাকা শ্রীলংকাকে খেলায় ফেরান।
হাসারাঙ্গা ২৬ ও শানাকা ৪৭ রানে আউট হন। সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়ে নার্ভাস নাইন্টিতে আউট হন ধনাঞ্জয়া। ৯১ বলে ১৩টি চারে সপ্তম হাফ সেঞ্চুরি  পুরন করে  ৯১ রান করেন তিনি। 
পরবর্তীতে লোয়ার-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ছোট-ছোট ইনিংসের সুবাদে ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৪১ রানের লড়াকু পুঁজি পায় শ্রীলংকা।
শুরুতে পাথুম নিশাঙ্কা-কুশল পেরেরা-আষ্কিা ফার্নান্দোর  পর হাসারাঙ্গা ও চামিকা করুনারতœকে শিকার করেন কারান। ইনিংস শেষে কারানের বোলিং ফিগার ১০ ওভার ৪৮ রানে ৫ উইকেট। ১০ ম্যাচের ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত পাঁচ বা ততোধিক উইকেট শিকার  করেন কারান। এছাড়া উইলি ৪ উইকেট নেন।
২৪২ রানের টাগেট স্পর্শ করতে খেলতে নেমে দারুন জবাব দেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো। বলের সাথে পাল্লা দিয়ে উদ্বোধনী জুটিতে ৭৬ রান তুলেন তারা।
বেয়ারস্টো ২৯ রানে আউট হলেও, ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ২০তম হাফ-সেঞ্চুরির দেখা পেয়ে থামেন রয়। ৫২ বলে ৬০ রান করেন তিনি।
১০৪ রানের মধ্যে দুই ওপেনারের বিদায়ের পর দলের হাল ধরে জয়ের টার্গেট স্পর্শ করেন জো রুট ও অধিনায়ক ইয়োইন মরগান। তখনও ৪২ বল বাকী ছিলো। ৮৭ বলে অপরাজিত ৬৮ রান করেন রুট। ৮৩ বলে অপরাজিত ৭৫ রান করেন মরগান। ম্যাচ সেরা হয়েছেন কারান।
আগামী ৪ জুলাই ব্রিস্টলে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

চার নতুন মুখ নিয়ে একমাত্র টেস্টের দল ঘোষণা করলো জিম্বাবুয়ে

পোলার্ড ঝড়ে সিরিজে সমতা আনলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ