ভিতরে

সেবার মান বাড়াতে কর্মকর্তাদের সততা ও দক্ষতার সাথে কাজ করার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ব বাণিজ্যে নিজেদের অবস্থান আরও সুদৃঢ় করতে সেবার মান বাড়ানো বিশেষ জরুরি। এর জন্য সরকারি কর্তকর্তাদের সততা ও দক্ষতার সাথে কাজ করার পাশাপাশি ডিজিটাল পদ্ধতির সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে।
সোমবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে অধিনস্থ দপ্তর ও সংস্থাসমুহের ‘বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর এবং শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
টিপু মুনশি বলেন, বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য দায়বদ্ধতা তৈরি করে। আশা করি বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবং অধিনস্থ সংস্থার কর্মকর্তারা দক্ষতা ও সুনামের সাথে কাজ করে সেই দায়বদ্ধতা পূরণ করবেন। 
তিনি আরও বলেন, সরকার শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে কর্মকর্তা-কর্মচারিদের কাজে উৎসাহ দিচ্ছে। বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি ২০২১-২০২২ অর্থ বছরের বাজেট সফলভাবে বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার তার কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করেছে। প্রতিটি অফিসে সেবার মান বৃদ্ধির জন্য নানামুখি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বাড়াতে কর্ম সম্পাদন চুক্তি প্রবর্তন করেছে সরকার। এর মাধ্যমে একটি কার্যকর, দক্ষ ও  গতিশীল প্রশাসনিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে স্বাক্ষর করেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ। অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. জহিরুল ইসলাম, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান এ এইচ এম আহসান, যৌথ মূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমুহের পরিদপ্তরে নিবন্ধক শেখ সোয়েবুল আলম, আমদানি ও রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দপ্তরের প্রধান নিয়ন্ত্রক সোলায়মান খান ও ট্রেডিং করপোরেশন অফ বাংলাদেশের (টিসিবি) চেয়ারম্যান বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান। 
২০২০-২০২১ অর্থ বছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার পেয়েছেন ট্রেডিং করপোরেশন অফ বাংলাদেশের (টিসিবি) চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব (রপ্তানি) মো. আব্দুর রহিম ও কম্পিউটার অপারেটর তানজিনা হক। বাণিজ্যমন্ত্রী বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।
অনুষ্ঠানে বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ বক্তব্য রাখেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মো. মফিজুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। 

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে ৫ কোটি ১১ লাখ টাকা লভ্যাংশ জমা দিল বিএসআরএম ও ইডটকো

দেশের সার্বিক উন্নয়নে এপিএ চুক্তির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ : খাদ্যমন্ত্রী