ভিতরে

নেদারল্যান্ডসকে কাঁদিয়ে শেষ আটে চেক প্রজাতন্ত্র

নেদারল্যান্ডসকে পরাজিত করে ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে চেক প্রজাতন্ত্র। গতকাল বুদাপেস্টের পুসকাস এরিনাতে শেষ ১৬‘র ম্যাচে ১০ জনের ডাচ দলকে ২-০ গোলে পরাজিত করে শেষ আটের টিকিট পেয়েছে চেকরা। টমাস হোলস ও প্যাট্রিক শিকের দ্বিতীয়ার্ধের দুই গোলে চেকদের জয় নিশ্চিত হয়।
৫৫ মিনিটে মাথিয়াস ডি লিটের লাল কার্ডের পর হোলসের হেড ও শিকের দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে ডাচদের বিদায় নিশ্চিত হয়। আগামী ৩ জুলাই বাকুতে কোয়ার্টার ফাইনালে চেক প্রজাতন্ত্রের প্রতিপক্ষ ডেনমার্ক। ্মাস্টারডামে ঘরের মাঠে গ্রুপ পর্বের তিনটি ম্যাচেই জয়ী হয়ে শীর্ষ দল হিসেবে নক আউট পর্ব খেলতে এসেছিল ফ্র্যাংক ডি বোয়ারের দল। কিন্তু প্রথমবারের মত টুর্নামেন্টে ঘরের বাইরে খেলতে এসে নিজেদের মানিয়ে নিতে পারেনি ডাচরা। দর্শকে পরিপূর্ণ পুসকাস এরিনাতে স্বাভাবিক ভাবেই কমলা সমর্থকদের আধিপত্য ছিল। উল্লাসে মাতিয়ে রাখা সেই সমর্থকদের শেষ পর্যন্ত কান্না উপহার দিল ডাচরা। অথচ ম্যাচের শুরুতেই তাদেরই দাপট ছিল। ৮ মিনিটে ড্যানি ব্লিন্ডের ক্রসে চেক গোলরক্ষক টমাস ভাক্লিক দারুনভাবে প্রস্তুত ছিলেন। ডি লিডে হেড গোলমুখ থেকে আটকে দিলেও ফিরতে বলে মেফিস ডিপেও সফল হতে পারেননি। এরপর উভয় উইং থেকে বেশ কিছু আক্রমন চালিয়েছে ডেনজেল ডামফ্রাইস। কিন্তু আবারো চেকদেও রক্ষা করেন ভাক্লিক। ডামফ্রাইসের হেড জালের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। শুরু ধাক্কা সামলে জারোস্লাভ সিলহেভির দারুন ছন্দে থাকা দলটি ধীরে ধীরে ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিজেদের করে নেয়। সেরা তৃতীয় স্থানে থাকা দল হিসেবে ডি-গ্রুপ থেকে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়ার পর শেষ ১৬‘তে জায়গা কওে নিয়েছিল চেজ প্রজাতন্ত্র। বেশ কিছু কাউন্টার এ্যাটাক থেকে তারা ডাচ রক্ষনভাগকে ব্যস্ত করে তোলে।  ইনজুরি আক্রান্ত ভøাদিমির ডারিডার কাছ থেকে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড পাওয়া টমাস সুচেকের একটি শক্তিশালী হেড অল্পের জন্য ক্রসবারের উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। এরপর লুকাস মাসোপুস্টোর কাছ থেকে বল পেয়ে এন্টোনিন বারাকের বাম পায়ের শটটিও জালের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। 
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই বিপদে পড়ে নেদারল্যান্ডস। ৫৫ মিনিটে ডি বক্সের ঠিক বাইরে থেকে শিকের একটি গোলের সুযোগ ইচ্ছাকৃত ভাবে হাত দিয়ে আটকে দিয়ে রাশিয়ান রেফারি সার্গেই কারাসেভের লাল কার্ডের শিকান হন ডি লিট। বায়ার লেভারকুসেনের স্ট্রাইকার শিক গ্রুপ পর্বে চেকদের হয়ে তিনটি গোলই করেছেন। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝিতে পাভেল কাডারবাক গোল প্রায় করেই ফেলেছিলেন। কিন্তু এবারও হতাশ হতে হয় চেকদের। ৬৮ মিনিটে আর কোন ভুল করেননি হোলস। বারাকের কার্লিং ফি-কিক থেকে টমাস কালাসের হেড অনেকটা ফাঁকায় দাঁড়ানো হোলসের কাছে গেলে হেডের সাহায্যে তিনি চেকদেন এগিয়ে দেন। ম্যাচ শেষের ১০ মিনিট আগে হোলসের দারুন একটি কাট-ব্যাক থেকে শিক ব্যবধান দ্বিগুন করার পাশাপাশি দলের জয় নিশ্চিত করেন। টুর্নামেন্টে এটি শিকের চতুর্থ গোল। 

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালকে বিদায় করে শেষ আটে বেলজিয়াম

অবসরের বিষয়টি উড়িয়ে দিলেন বেল