ভিতরে

ইরানকে যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের সতর্ক বার্তা পরমাণু চুক্তি রক্ষার সময় ফুরিয়ে যাচ্ছে

যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্স শুক্রবার ইরানকে সতর্ক করে  বলেছে, পারমাণবিক চুক্তিতে ফিরে আসার সময় ফুরিয়ে যাচ্ছে। আলোচনার বিষয় নিয়ে টানাটানি করতে থাকলে তেহরানের আণবিক কর্মসূচির কাজ এগিয়ে যেতে পারে বলেও তারা শঙ্কা ব্যক্ত করে। খবর এএফপি’র।
প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রশাসনের প্রথম উচ্চ পর্যায়ের প্যারিস সফরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টোনি ব্লিনকেন ও তার ফরাসি নিমন্ত্রণকর্তা ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলের চার বছরের হট্টগোলের পর সহযোগিতার নতুন উদ্যমকে সাধুবাদ জানান।
তবে উভয় পক্ষ জানায়, ইরানের কট্টরপন্থী সরকার পরমাণু সংক্রান্ত আলোচনায় ছাড় দেয়ার মনোভাব না দেখালে দেশটির ২০১৫ সালের পারমাণবিক চুক্তি ফিরে আসার ব্যাপারে করা বাইডেনের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিশ্রুতি ঝুঁকির মুখে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ভিয়েনায় দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে এ আলোচনা চলমান রয়েছে। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তেহরানের সাথে করা পরমাণু চুক্তিকে অর্থহীন আখ্যায়িত করেন এবং এ চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন।
ব্লিনকেন সতর্ক করে  বলেন, ইরানের সাথে এখনো যুক্তরাষ্ট্রের ‘অনেক মতপার্থক্য’ রয়েছে। এছাড়া দেশটির গত সপ্তাহের নির্বাচনে কট্টরপন্থী ইব্রাহিম রাইসি জয়লাভের পরও তারা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।
এক্ষেত্রে ইরান তার আগের অবস্থানে ফিরে আসার ক্ষেত্রে এ চুক্তিতে ফেরার ব্যাপারে বাইডেনের এখনো সমর্থন রয়েছে বলে জানান ব্লিনকেন। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে ট্রাম্প এ চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে নতুন করে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে তেহরানও পরমানু চুক্তির ব্যাপারে দেয়া তাদের প্রতিশ্রুতি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

মালিতে বিচ্ছিন্নতাবাদী হামলায় ৬ সেনার মৃত্যু, ১৫ শান্তিরক্ষী আহত

ডেল্টা ভেরিয়ান্ট রোধে সিডনিতে লকডাউন