ভিতরে

হাঙ্গেরির সাথে ড্র করে অঘটন থেকে রক্ষা পেল জার্মানী

বদলী বেঞ্চ থেকে উঠে এসে জার্মানীকে শেষ পর্যন্ত নাটকীয় এক ম্যাচে রক্ষা করেছেন বায়ার্ন মিউনিখের অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার লিঁও গোরেৎকা। বুধবার মিউনিখের আলিয়াঁজ এরিনাতে হাঙ্গেরির সাথে দুইবার পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে জার্মানী। আর মূল্যবান এই এক পয়েন্টে অঘটনের হাত থেকে রক্ষা পাবার পাশাপাশি গ্রুপ-এফ‘র দ্বিতীয় দল হিসেবে নক আউট পর্বও নিশ্চিত করেছে জোয়াচিম লো’র দল। 
অধিনায়ক এ্যাডাম সাজালাইয়ের গোলে ১১ মিনিটেই এগিয়ে গিয়েছিল সফরকারী হাঙ্গেরি। দ্বিতীয়ার্ধে কেই হাভার্টজের গোলে সমতায় ফিরে জার্মানরা। ৬৮ মিনিটে আন্দ্রাস শাফেরের গোলে আবারো এগিয়ে যায় হাঙ্গেরি। কিন্তু ম্যাচের নাটকীয়তা তখনো বাকি ছিল। ম্যাচ শেষে ৬ মিনিট আগে গোরেৎকা দুর্দান্ত এক শটে জার্মানদের এক পয়েন্ট নিশ্চিত করে। এই ড্রয়ে ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপ থেকে বিদায় ঘটেছে হাঙ্গেরির। আগামী মঙ্গলবার ওয়েম্বলিতে শেষ ১৬‘র হাই ভোল্টেজ ম্যাচে ইংল্যান্ডের মোকাবেলা করবে জার্মানী। 
ম্যাচের শুরু থেকেই কিছুটা ছন্দহীন হয়ে পড়ে জার্মানী। রোলান্ড সালাইয়ের দুর্দান্ত এক ক্রস থেকে ১১ মিনিটে অধিনায়ক সাজালাই দুই সেন্টার-ব্যাক ম্যাটস হামেলস ও মাথিয়াস গিন্টারের মাঝ দিয়ে ম্যানুয়েল নয়্যারকে পরাস্ত করলে এগিয়ে যায় হাঙ্গেরি। মিউনিখের মাঠে উপস্থিতি হাঙ্গেরিয়ান সমর্থকরা যখন উল্লাস করছিল তখন তাদের  প্রতিপক্ষ জার্মান শিবিওে ছিল শুনশান নিরবতা। এক গোলে পিছিয়ে থেকে জার্মানরা নড়েচড়ে বসে। হামেলসের শট ক্রসবারে লেগে ফেরত আসে। গিন্টারের শট আটকাতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি সফরকারী গোলরক্ষক পিটান গুলাকসিকে। মাত্র চারদিন আগে পর্তুগালের বিপক্ষে ৪-২ গোলের জয়ের ম্যাচটিতে যে উজ্জীবিত জার্মানদের দেখা গিয়েছিল  এম্যাচে তার ছিটেফোঁটায় কাল ছিলনা। 
৬৬ মিনিটে জসুয়া কিমিচের ফ্রি-কিক ধরতে ব্যর্থ হন গুলাকসি। সেই সুযোগে ফাঁকা জালে বল প্রবেশ করান হাভার্টজ। কিন্তু জার্মানদের এই গোল উৎসব খুব বেশীক্ষন স্থায়ী হয়নি। দুই মিনিটের মধ্যে সাজালাইয়ের লম্বা একটি পাস থেকে শাফের জার্মান ডিফেন্ডারদের মধ্যে থেকে এগিয়ে আসার নয়্যারকে পরাস্ত করলে আবারো এগিয়ে যায় হাঙ্গেরি। জার্মানীর গুরুত্বপূর্ণ দ্বিতীয় সমতার গোলটি এসেছে দুজন বদলী খেলোয়াড়ের কল্যানে। টিনএজার জামাল মুসিয়ালার কাট ব্যাকে ৮৪ মিনিটে তার বায়ার্ন সতীর্থ গোরেৎকা দারুন এক শটে জার্মানদের ভাগ্য ফেরান।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নক আউট পর্বে পর্তুগাল ও ফ্রান্স

সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক গোলের রেকর্ড স্পর্শ করলেন রোনাল্ডো