ভিতরে

আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ গভীরভাবে সম্পর্কযুক্ত : তোফায়েল আহমেদ

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি বলেছেন,  জনগণের চিন্তা, চেতনা, আকাঙ্খা এবং স্বপ্নের বিকাশ ঘটেছে আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে। আওয়ামী লীগ মহান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব প্রদানকারী দল। আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ গভীরভাবে সম্পর্কযুক্ত।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে যুক্তরাজ্য আওয়ামী  লীগের  উদ্যোগে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়। লন্ডনের স্থানীয় দুপুর সাড়ে ১২টায় অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। 
বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ তোফায়েল আহমেদ বলেন, আওয়ামী লীগ একটি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দুটি স্বপ্ন ছিলো, একটি বাংলাদেশের স্বাধীনতা, অন্যটি বাংলার মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি।
বঙ্গবন্ধুর প্রাক্তন রাজনৈতিক সচিব তোফায়েল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ স্বাধীন করেছেন, আর তাঁর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলার মানুষকে অর্থনৈতিক মুক্তি দিচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের গ্রাম আজ শহরে রূপান্তরিত হচ্ছে।   
প্রধান বক্তা আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন,  ২৩শে জুন বাঙালির জন্য আনন্দের দিন, কারণ এই দিনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা হয়েছে। এই প্রাচীনতম দল আওয়ামী লীগ একটি জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছে। আওয়ামী লীগ তার প্রতিষ্ঠার পর থেকে পাকিস্তানী শাসক-শোষকদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ সারাবিশ্বে প্রশংসা লাভ করছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল।     
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি এমপি বলেন, দেশের প্রত্যেকটি আন্দোলন সংগ্রামে আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব দিয়েছে। বাঙালির যতো অর্জন, ভাষার অধিকার, স্বাধীনতা এবং আজকের যে উন্নয়ন তার সবই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে যা কিছু দিয়েছেন সেই দেওয়ার বাহন ছিলো আওয়ামী লীগ। আর আজকের বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে অর্জন- গণতন্ত্র, আইনের শাসন সহ সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক সকল ক্ষেত্রে যে ব্যাপক উন্নয়ন তারও বাহন হচ্ছে আওয়ামী লীগ।     
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন বলেন, ৭২ বছর ধরে আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে ছিলো, বাংলাদেশের পাশে আছে এবং আগামীদিনেও পাশে থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ টানেলের যুগে, স্যাটেলাইটের যুগে প্রবেশ করেছে। শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য প্রাসঙ্গিক, অহর্নিশ তাঁর বিকল্প তিনিই।
সভায় বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের সকল প্রগতিশীল আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছে। গণমানুষের দল আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী দল।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

প্রত্যেক সংসদীয় এলাকায় ভোকেশনাল টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট স্থাপন প্রকল্প গ্রহণের সুপারিশ

দেশে খাদ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে : খাদ্যমন্ত্রী