ভিতরে

লক্ষ্মীপুরে ক্ষুদ্রঋণের সুষ্ঠু ব্যবহার ও প্রশিক্ষিত উদ্যোক্তা সৃষ্টির লক্ষ্যে সেমিনার

শহর সমাজসেবা কার্যালয়ে আজ বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টাপর্যন্ত  “ক্ষুদ্র ঋণের সুষ্ঠু ব্যবহার ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের মনোন্নয়নে করণীয়” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে শহর সমাজসেবার সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণ বাস্তবায়ন কমিটি এবং দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিচালনা পর্ষদের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। 
এ সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ। এসময় তিনি বলেন, ‘ক্ষুদ্রঋণের সুষ্ঠু ব্যবহার অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। এক্ষেত্রে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। কারণ ঋণ গ্রহিতা প্রশিক্ষিত ও দক্ষ হলেই ক্ষুদ্রঋণের সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব। এছাড়াও ঋণ গ্রহিতাদের উদ্যোগী ও পরিশ্রমী হতে হবে।
জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ আরও বলেন, ‘ভাষা নিজেই একটি প্রযুক্তি। তাই অন্যান্য কারিগরি প্রশিক্ষণের মতো শুধুমাত্র ভাষা শিখেও নিজেকে স্বাবলম্বী করা সম্ভব।’
লক্ষ্মীপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. নুরুল ইসলাম পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে এ সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা বিআরডিবির উপপরিচালক সাধনা রাণী দেবনাথ, লক্ষ্মীপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উপাধ্যক্ষ মির্জা ফিরোজ হাসান, সদর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, শহর সমাজসেবা কার্যালয়ের কর্মকর্তা মো. আবদুল আজিজ মাহবুব, দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক আবদুর রশিদ, স্থানীয় পৌরসভার কাউন্সিলর আবুল খায়ের স্বপন ও জেসমিন আক্তার প্রমুখ।
উল্লেখ্য, লক্ষ্মীপুর শহর সমাজসেবা কার্যালয়ের সুদমুক্ত ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমের ঘূর্ণায়মান তহবিল হিসেবে এখন পর্যন্ত ১৭১৪ জন উপকারভোগীর মাঝে প্রায় ২ কোটি ১৭ লাখ ৫২ হাজার টাকা ঋণ দেয়া হয়েছে। তাছাড়া এখানে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে স্থানীয় বেকার ছেলেমেয়েদের কম্পিউটার অফিস অ্যাপ্লিকেশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া, আমিনশীপ, স্পোকেন ইংলিশ ও আউটসোর্সিংয়ের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

সারাদেশে বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্যেদিয়ে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

আগামী দিনে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে অনেক সম্ভাবনা : অর্থমন্ত্রী