ভিতরে

ইউরোকে কেন্দ্র করে ভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থার শিথিলতায় উদ্বিগ্ন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

ইউরো ২০২০ টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে করোনা ভাইরাসের বিধিনিষেধ শিথীল করার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। মঙ্গলবার তারা বলেছে এই কারণে কিছু কিছু এলাকায় কোভিড-১৯ এর সংক্রমন বাড়ছে। 
ইউরোপের আঞ্চলিক অফিসে কর্তব্যরত হু’র নির্বাহী পরিচালক রব বাটলার বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘কিছু কিছু আয়োজক দেশ তাদের করোনা বিধিনিষেধ শিথীল করার ঘটনায় উদ্বিগ্ন হু। টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে যাওয়া কিছু সংখ্যক স্টেডিয়াম এখন দর্শক অনুপ্রবেশের সংখ্যা বাড়িয়ে দিচ্ছে।’
জাতিসংঘের এই সংস্থাটি অবশ্য সুনির্দিষ্ট কোন শহরের নাম উল্লেখ করেনি। তবে মঙ্গলবার ব্রিটেন ঘোষণা করেছে টুর্নামেন্টের সেমি-ফাইনাল ও ফাইনাল উপলক্ষে লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ৬০ হাজারেরও বেশী দর্শককে প্রবেশ করার অনুমতি দেয়া হবে। পুর্বের পরিকল্পনা অনুযায়ী এই সংখ্যা ছিল ৪০ হাজার। 
বাটলার বলেন, ‘কিছু কিছু আয়োজক শহরে কোভিড-১৯ এর সংক্রমন বেড়ে গেছে। অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে সংক্রমন বৃদ্ধির ঘটনাকে সংকেত হিসেবে নিয়ে কাজ করতে হবে। পরীক্ষা বাড়িয়ে, কন্টাক্ট ট্রেসিং বাড়িয়ে, উচ্চমাত্রার টিকা প্রয়োগের মাধ্যমে সেখানখার নাজুক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হলেও সেটি ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে।’
ইউরোকে কেন্দ্র করে ডেনমার্কে অন্তত কোভিড-১৯ এর ২৯টি সংক্রমন ধরা পড়েছে। কোপেনহেগেনে আয়োজিত হচ্ছে ইউরোর ম্যাচ। গণমাধ্যমের রিপোর্ট মোতাবেক ওই সব মানুষের মধ্যে করোনার সংক্রমন ধরা পড়েছে, যারা ইউরোর ম্যাচ উপভোগ করেছেন কোন রকম সতর্কতা মুলক ব্যবস্থা ছাড়াই। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা আনেত্তে লিক্কে পেট্রি। আগামীতে মানুষের মধ্যে এই সংক্রমন আরো বাড়তে পারে। 
ডেনমার্কেও দর্শক অনুপ্রবেশের সংখ্যা ১৬ হাজার থেকে বাড়িয়ে ২৫ হাজারে উন্নীত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ডেনমার্ক বনাম বেলজিয়ামের ম্যাচের টিকিটের জন্য বিপুল সংখ্যক আবেদন জমা পড়েছে।       
ইউরোর বুদাপেস্টে পুসকাস এরিনার ম্যাচগুলোতে ৬৮ হাজার ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়ামটি পুর্ন ছিল কানায় কানায়। যদিও সেখানকার করোনা পরিস্থিতি বিগত দুই মাসে অনেকটাই উন্নতি লাভ করেছে। তারপরও তাদেরকে সতর্কতা অবলম্বনের ধারা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছে হু। সংস্থাটির ইউরোপীয়ান অঞ্চলের আঞ্চলিক কর্মকর্তা হ্যান্স ক্লুগে জুনের শুরুতেই সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ‘আমরা যদিও অনেকটাই এগিয়ে এসেছি। তবে খুব বেশী দূরত্ব অতিক্রম করতে পারিনি।’
ওই অঞ্চলটিকে সংহত রাখার জন্য টিকা প্রয়োগের মাত্রা এখনো অনেক কম বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

বাংলাদেশ দলের জিম্বাবুয়ে সফরের সূচি প্রকাশ

নিজেকে প্রমাণ করেছি : ডি মারিয়া