ভিতরে

জয়পুরহাটে ৭ বছরের সাজা প্রাপ্ত আব্দুল মতিন গ্রেফতার

একটি অপহরণ মামলায় ৭ বছরের সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী আব্দুল মতিন মন্ডলকে ৩২ বছর পর গ্রেফতার করছে কালাই থানা পুলিশের সদস্যরা। সোমবার সন্ধ্যায় বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার জালশুকা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা জানান, ১৯৮৯ সালের ২৫ জুন মনঞ্জুরুল হক নামে এক শিশুকে অপহরণ করার অভিযোগে কালাই থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়। আসামী কালাই উপজেলার ইটাইল গ্রামের আব্দুল মালেক মন্ডলের ছেলে আব্দুল মতিন মন্ডল (৬০) ও একই গ্রামের  ভোলা সাখিদারের ছেলে সাকামুদ্দিন সাখিদার  নামে দুই ব্যক্তি। মামলায় সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে জেলা দায়রা ও জজ আদালতের বিচারক দুই জনকেই ৭ বছরের সাজা প্রদান করেন। সাকামুদ্দিন সাখিদার  সাজা ভোগ করলেও দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলেন আব্দুল মতিন মন্ডল। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মাদের নির্দেশনায় সোমবার সন্ধ্যায়  সোমবার সন্ধ্যায় বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার জালশুকা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে কালাই থানা পুলিশ। কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মালিক জানান ,আদালতের মাধ্যমে মঙ্গলবার সকালে আব্দুল মতিনকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে । এ ছাড়াও জেলা পুলিশ গত ২৪ ঘন্টায় বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপরাধমূলক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩২ জনকে গ্রেফতার করেছে। এরমধ্যে নিয়মিত মামলার আসামী রয়েছে ২০ জন ও পলাতক আসামী হচ্ছে ১২ জন।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

মুজিবনগরে চুল দিয়ে ক্যাপ তৈরির কারখানায় কাজ করে স্বাবলম্বী হচ্ছে নারীরা

শেরপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র লৎফর রহমানের ইন্তেকাল