ভিতরে

ক্রেমলিন সমালোচক নাভালনি জানতেন তিনি আইন লঙ্ঘন করছেন : পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বুধবার বলেছেন, সাজাপ্রাপ্ত ক্রেমলিন সমালোচক আলেক্সি নাভালনি চিকিৎসার জন্য জার্মানিতে যাওয়ার সময় আইন অমান্য করেন। দেশটির বিরোধী দলীয় এ নেতাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গত বছর প্রাণঘাতী বিষ প্রয়োগের পর তিনি জার্মানিতে যান। খবর এএফপি’র।
শরীরে বিষাক্ত নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করায় জার্মানিতে কয়েক মাস ধরে চিকিৎসা গ্রহণ করে নাভালনি রাশিয়ায় ফিরে আসার পর গত জানুয়ারিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে দেশে দুর্নীতি বিরোধী এবং রাজনৈতিক প্রচারণা চালান। তার শরীরে বিষ প্রয়োগের ব্যাপারে তিনি ক্রেমলিনকে দায়ী করেন।
জেনেভায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাথে সম্মেলনের পর পুতিন বলেন, ‘এই ব্যক্তি জানতেন যে তিনি রাশিয়ার আইন লঙ্ঘন করছেন।’ এ প্রসঙ্গে তিনি নাভালনির স্থগিত দন্ডাদেশের বিভিন্ন শর্ত লঙ্ঘনের কথা উল্লেখ করেন।
পুতিন বলেন, ‘সচেতনভাবে আইনের বিভিন্ন ধারা লঙ্ঘন করে তিনি চিকিৎসার জন্য বিদেশ চলে যান।’ তিনি অভিযোগ করেন এক্ষেত্রে দেশে ফিরে নাভালনি গ্রেফতার হতে পারেন তা জেনেশুনেই তিনি এমনটা করেন।
পরবর্তীকালে আগের প্রতারণার বিভিন্ন অভিযোগে দায়ের করা মামলায় নাভালনির আড়াই বছরের সাজা হয় এবং ‘উগ্রবাদী’ হিসেবে তার সংগঠনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। এছাড়া সেপ্টেম্বরের পার্লামেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা থেকে তার দলের সদস্যদের বাদ দেয়া হয়।
বিশ্বের অনেক ইস্যুতে ‘দ্বিমুখী আচরণ’ এবং রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করায় পুতিন ওয়াশিংটনকে অভিযুক্ত করেন।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

রাষ্ট্রদূতদের কর্মস্থলে ফেরত পাঠাতে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া

মেক্সিকোর মেট্রো দুর্ঘটনা ॥ কারণ কাঠামোগত ত্রুটি