ভিতরে

মেক্সিকো ও পোল্যান্ডে ফাইজারের জাল টিকা বিক্রি

যুক্তরাষ্ট্রের ঔষধ প্রস্তুতকারী কোম্পানী ফাইজার বুধবার নিশ্চিত করে বলেছে, মেক্সিকো ও পোল্যান্ডে তাদের করোনা ভাইরাসের যেসব সন্দেহজনক টিকার ডোজ আটক করা হয়েছে সেগুলো জাল।
মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের খবরে এ কথা বলা হয়েছে।
ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মেক্সিকোর একটি ক্লিনিকে প্রায় ৮০ জন লোক ফাইজারের টিকার এই নকল ডোজ গ্রহণ করেছে। তবে এতে শারিরীকভাবে ক্ষতির আশংকা নেই। কিন্তু করোনা প্রতিরোধে কোন সুরক্ষা দেবে না।
মেক্সিকোর উত্তরাঞ্চলীয় নুয়েভো লিওন রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ফেব্রুয়ারি মাসে তথাকথিত এসব ভুয়া টিকা গোপনে বিক্রির বিষয়ে সতর্ক করেছিল এবং লোকজনকে এসব টিকা না নেয়ার আহ্বান জানিয়েছিল।
এছাড়া মার্চ মাসে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মেক্সিকোয় ফাইজারের ভুয়া ভ্যাকসিন পাওয়া গেছে বলে সতর্ক করেছিল।
ফাইজার এসব ভুয়া টিকার পরীক্ষা চালিয়ে দেখেছে এতে দুই ডোজ ভ্যাকসিনের উপকরণ নেই যা তারা বায়োএনটেকের সাথে যৌথভাবে তৈরি করেছিল।
ফাইজারের বৈশ্বিক সুরক্ষা প্রধান লেভ কুবিয়াক বলেছেন, ভ্যাকসিনের চাহিদা তীব্র, কিন্তু যোগান স্বল্পতার কারণে এ ধরণের জালিয়াতি হচ্ছে।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

ইসরাইলের দক্ষিণাঞ্চলে ‘ক্ষেপণাস্ত্র’ হামলার পর সিরিয়ায় হামলা ইসরাইলের

দিল্লীর সাবেক মন্ত্রী এ কে ওয়ালিয়া করোনায় মারা গেছেন