ভিতরে

বিশ্বকাপ বাছাই: এমবাপ্পের পেনাল্টি মিসের দিনে ফ্রান্সের জয়

ওসমানে ডেম্বেলের প্রথমার্ধের গোলের পর প্রতিপক্ষের আত্মঘাতি আরো এক গোলে রোববার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে কাজাকাস্থানকে ২-০ গোলে পরাজিত করেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। বদলী বেঞ্চ থেকে উঠে এসে পেনাল্টির সুযোগ নষ্ট করেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। কিন্তু তারপরেও ফরাসীদের জয়রথ থামানোর সাধ্য ছিলনা কাজাকদের।
গত বুধবার ইউক্রেনের বিপক্ষে বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠে ১-১ গোলে ড্র করেছিল ফ্রান্স। মূল দলে ফেলা অভিজ্ঞ তারকা পল পগবা বলেছেন, ‘ম্যাচ শেষে একটি কথাই বলতে পারি আমাদের লক্ষ্য পূরন হয়েছে। একটি শক্তিশালী দলের বিপক্ষে এটা অবশ্যই ইতিবাচক একটি ফল। অনেকেই হয়ত মনে করতে পারে কাজাকাস্তান আমাদের অন্তত পাঁচটি গোলের সুযোগ করে দিয়েছে। কিন্তু তারাও ভাল খেলেছে, মাঠে আমরা সেটা বুঝতে পেরেছি। আমাদের আরো বেশী গোল করা উচিত ছিল। কিন্তু তাদের গোলরক্ষক আজ ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় ছিল। এই ফলাফলে আমরা খুশী।’
বুধবার বাছাইপর্বে আরো একটি ম্যাচ রয়েছে দিদিয়ের দেশ্যমের দলে। ঐ ম্যাচের প্রতিপক্ষ বসনিয়া এন্ড হার্জেগোভেনিয়া। জুনে ইউরো ২০২০ এর প্রস্তুতি নেবার আগে ব্যস্ত বাছাইপর্বের সূচী জয়ের মাধ্যমেই আপাতত শেষ করতে চায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।
একটি সতেজ দল নিয়ে মাঠে নামার লক্ষ্যে দেশ্যম ইউক্রেনের সাথে ড্রয়ের ম্যাচটি থেকে নয়টি পরিবর্তণ করে মূল দল সাজিয়েছিলেন। প্যারিস থেকে পাঁচ হাজার কিলোমিটারেরও বেশী পূর্বে অবস্থিত এই নুর সুলতানের আস্তানা এরিনাতে স্বাগতিক উপর প্রথম থেকেই চড়াও হয়ে খেলতে থাকে ফরাসিরা। প্রথম ম্যাচের একমাত্র গোলদাতা আঁতোয়া গ্রীজম্যান একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে মূল দলে জায়গা ধরে রেখেছিলেন। ১২২তম ম্যাচ খেলতে কাল মাঠে নেমেছিলেন গোলরক্ষক হুগো লোরিস। গ্রীজম্যানের বার্সেলোনা সতীর্থ ওসামানে ডেম্বেলে ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ^্কাপের পর এই প্রথমবারের মত ফ্রান্সের হয়ে কোন প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক ম্যাচ খেলতে মাঠে নেমেছিলেন। ২০ মিনিটে এই ডেম্বেলের হাত ধরেই এগিয়ে যায় ফ্রান্স। বক্সের বাইরে থেকে বল নিয়ন্ত্রনে নিয়ে লো ড্রাইভে ডেম্বেলে বল জালে জড়ান। বিরতির ঠিক আগে গ্রীজম্যানের কর্ণার থেকে ডিফে-ার মেলির হেড আত্মঘাতি গোলে পরিণত হলে ব্যবধান দ্বিগুন করে ফ্রান্স। বিশ^ র‌্যাঙ্কিংয়ের ১২২তম দল কাজাকাস্তান ২০১৮ সালের বিশ^কাপ বাছাইপর্বের কোন ম্যাচ জিততে পারেনি। ম্যাচের শেষ পর্যন্ত তারা ফরাসীদের বিপক্ষে কোন প্রতিরোধ কিংবা সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেনি। ৫৯ মিনিটে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফরোয়ার্ড এন্থনি মার্শালের পরিবর্তে মাঠে নামেন এমবাপ্পে। ৭৫ মিনিটে এমবাপ্পেকে ফাউলের অপরাধে নুরালি আলিপের বিপক্ষে পেনাল্টি উপহার পায় ফ্রান্স। কিন্তু এমবাপ্পের স্পট কিক গোলরক্ষক আলেক্সান্দার মোকিন রুখে দিলে হতাশ হতে হয় ফ্রান্সকে। যদিও শেষ পর্যন্ত তিন পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছেড়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

আপনি কি মনে করেন?

0 টি পয়েন্ট
উপনোট ডাউনভোট
উত্তর দিন

মন্তব্য করুন

বিশ্বকাপ বাছাই: ওলোমোর শেষ মুহূর্তের গোলে রক্ষা পেল স্পেন

সিরিজ জিতেও খুশি নন কোহলি